মাগুরায় পাঁচ লাখ টাকার পাটকাঠি পুড়িয়ে দিলো দুর্বৃত্তরা

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার রাজপাট গ্রামে রাতের আঁধারে আগুন দিয়ে অন্তত ৫ লাখ টাকার পাটকাঠি পুড়িয়ে দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে রাজপাট গ্রামে ব্যবসায়ী মিন্টু কুমার সাহা ও সাহেব আলীর যৌথ মালিকানাধীন পাটকাঠির গাদিতে আগুনের ঘটনার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনার পর মাগুরা ও মহম্মদপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ৪ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৮ ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী মিন্টু কুমারের দেয়া তথ্যমতে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে তারা বিভিন্ন স্থান থেকে পাটকাঠি কিনে এখানে সংরক্ষণ করেন। পারে এগুলো বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠিসহ বিভিন্ন জেলায় পানের বরজের জন্য বিক্রি করা হয়। এ জায়গাটিতে তাদের প্রায় ৫ লাখ টাকার পাটকাঠি মজুদ করা ছিলো। ঘটনার রাতে কে বা কারা শত্রুতামূলকভাবে রাস্তা থেকে প্রায় ৫০ গজ ভেতরের সবচেয়ে বড় খড়ের গাদাটিতে কয়েক জায়গায় আগুন দেয়। আগুনের খবর পেয়ে প্রথমে স্থানীয় বাসিন্দারা এগিয়ে আসে। পরবর্তীতে খবর দিলে মাগুরা ও মহম্মদপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। কিন্তু ততক্ষণে আগুনে বড় গাদিগুলোসহ আশপাশের বিভিন্ন গাদি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ ঘটনাকে পরিকল্পিত অগ্নিকাণ্ড বলে দাবি করে তিনি ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও দায়ীদের বিচার দাবি করেন।

তবে এ ব্যাপারে এখনো পুলিশের কাছে কোনো লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়নি।

মাগুরা ফায়ার সর্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক মাসুদ সরদার জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট সারারাত চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কীভাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে সে ব্যাপারে পরবর্তীতে তদন্ত শেষে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

স্বাআলো/এসএ