শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি: একে একে বের করা হলো ২১ জনের লাশ

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে মালবাহী কার্গোর ধাক্কায় ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধার করা হয়েছে। লঞ্চে আরো ২১ জনের মরদেহ পাওয়া গেছে।

এ দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৬ জনে।

সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ডুবে যাওয়া লঞ্চ উদ্ধার করা হয়। এরপরই লঞ্চটির ভেতর থেকে একে একে ২১ জনের মরদেহ বের করে উদ্ধারকারীরা।

বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে নারায়ণগঞ্জের কয়লাঘাট এলাকায় ডুবে যায় এমভি রাবিত আল হাসান নামের লঞ্চটি। মোবাইলে ধারণ করা ফুটেজে দেখা যায় একটি কার্গো জাহাজ পেছন থেকে লঞ্চটিকে ধাক্কা দিলে ঘটে দুর্ঘটনা। এরপর থেকেই স্বজনদের আহাজারি আর কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে শীতলক্ষ্যার পাড়।

অভিযান শুরুর চার ঘণ্টা পর রাত ১২টার দিকে ৫টি মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। মরদেহ পাড়ে আনার সঙ্গে সঙ্গেই দেখা দেয় হৃদয়বিদারক দৃশ্য। নিখোঁজ স্বজনের খোঁজে মরদেহ শনাক্তে হুমড়ি খেয়ে পড়ে স্বজনেরা। ডুবে যাওয়া লঞ্চে ৪৮ জন যাত্রী ছিল বলে ফায়ার সার্ভিস।

স্বাআলো/এসএ

.