ডেনমার্ক চলে গেলেন অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া

লকডাউনের কারণে পুরোপুরি বন্ধ দেশের ফুটবল। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে শুরু করে নিচের স্তরের সব লিগের খেলাও স্থগিত করে দিয়েছে বাফুফে।

লকডাউন তুলে দেয়ার পর কমপক্ষে সাতদিন সময় দিয়ে পুনরায় খেলা শুরু কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।

তাই এক প্রকার তড়িঘড়ি করেই দেশ ছেড়ে গেলেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। সোমবার রাতে তিনি চলে গেছেন ডেনমার্কে। সেখানেই বসবাস করে তার স্ত্রী-পরিবার।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বব্যাপী সীমিত হয়েছে বিমান চলাচল। এ কারণেই মূলত তাড়াহুড়োয় পড়তে হয়েছে জামালকে। লিগ শুরুর দিনক্ষণ চূড়ান্ত হলে দেশে ফিরে আসবেন জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক।

এদিকে কলকাতা মোহামেডানে ধারে খেলে জামাল ভূঁইয়া আগেই যোগ দিয়েছেন তার পুরোনো ক্লাব সাইফ স্পোর্টিংয়ে। জাতীয় দলের সঙ্গে নেপাল যাওয়ার আগেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দলটির সঙ্গে নতুন চুক্তিও সম্পন্ন করেছেন ক্লাবটির অধিনায়ক।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে বড় ব্যবধানে হারালো বাঘিনীরা

কলকাতা মোহামেডান থেকে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব-শারীরিক সম্পৃক্ততা হলেও কাগজ-কলমে একদিন আগেও তিনি ছিলেন কলকাতার ক্লাবটির খেলোয়াড়। গত রবিবার আনুষ্ঠানিকভাবে আবারো তাকে দলে ভিড়িয়েছে সাইফ এফসি।

ডেনমার্ক প্রবাসী জামাল ভূঁইয়ার বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলে অভিষেক ২০১৪ সালে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের জার্সিতে। ২০১৬ সালে যোগ দিয়েছিলেন শেখ রাসেলে।

২০১৭ থেকে আছেন সাইফ স্পোর্টিংয়ে। মাঝে কলকাতা মোহামেডান। ঘরোয়া ফুটবলে অভিষেকেরও আগে ২০১৩ সাল থেকে তিনি খেলছেন জাতীয় দলে। দীর্ঘদিন ধরে করছেন জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব।

স্বাআলো/এস