মসজিদে নামাজ ও তারাবী নিয়ে সরকারের নতুন নির্দেশনা

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত  এক সপ্তাহের জন্য সর্বাত্মক লকডাউনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

এমন অবস্থায় প্রতি ওয়াক্রে নামাজ ও তারাবীতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় মন্ত্রণালয়ের এক নির্দেশনায় বলা হয়, মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের প্রতি ওয়াক্তে সর্বোচ্চ ২০ জন মুসল্লি অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

এছাড়া তারাবীর নামাজে খতিব, ইমাম, হাফেজ, মুয়াজ্জিন ও খাদিমসহ সর্বোচ্চ ২০ জন মুসল্লি অংশগ্রহণ করবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে সম্মানিত মুসল্লিদের পবিত্র রমজানে তিলাওয়াত ও জিকিরের মাধ্যমে মহান আল্লাহর রহমত এবং বিপদ মুক্তির জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া প্রাণঘাতী সংক্রমণ রোধে স্থানীয় প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট মসজিদের পরিচালনা কমিটিতে উল্লেখিত নির্দেশনা বাস্তবায়ন করার জন্যও অনুরোধ জানানো হয় ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

করোনা সংক্রমণ মারাত্মকভাবে বেড়ে যাওয়ায় প্রথম দফায় মানুষের চলাচল ও কার্যক্রমে বিধি-নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর আগামী ১৪ এপ্রিল  থেকে আটদিনের জন্য চলাচলে বিধি-নিষেধ তথা কঠোর লকডাউন ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। ১৪ এপ্রিল থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত মসজিদে নামাজ আদায়ে এই সিদ্ধান্ত জারি থাকবে বলেও জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

স্বাআলো/আরবিএ