যুবকের ঘরে ঢুকে হাত-পায়ের রগ কেটে উধাও দুর্বৃত্তরা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে গভীর রাতে ঘরে ঢুকে আজিজ আলী (৩২) নামে এক যুবকের ডান হাত ও পায়ের রগ কেটে পালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার গভীর রাতে উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের কিরণগঞ্জ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত যুবক উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের কিরণগঞ্জ গ্রামের বাসন্দা।

স্থানীয়রা জানায় আজিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। রাতের কোন এক সময় অভিনব কায়দায় মূখোশধারীরা ঘরে ঢুকে তাঁর ডান হাত ও পায়ের রগ কেটে পালেয়ে যায়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।

আহত আজিজ মুঠোফোনে বলেন, আমার এলাকার কারো সাথে তেমন কোন ঝামেলা নেই। যদিও হালকা থাকে তাহলে কেউ আমার এতো বড় ক্ষতি করার সাহস পাবে না।

স্বাস্থ্যবিধি মানাতে রংপুর জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট

তিনি আরো বলেন, আমি যাকে বিয়ে করেছি, সে কালিগঞ্জ-ঘনটোলা গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে আলমগীর হোসেনের বউ ছিলো। স্ত্রী আমায় তালাক দিলে আমি ওই মেয়েকে বিয়ে করি। কিন্তু আলমগীর আমাকে বিভিন্ন সময় হাত-পা কেটে নিয়ে বলে হুমকি দিয়ে আসছিলো। কিন্তু পরে আবারো তিনি ফোনে হুমকি দিয়ে বলে আমি বিদেশে থাকলেও আমি তোর হাত-পা কেটে নিবো। এছাড়াও তার চাচাতো ভাই সাইফুদ্দিনের ছেলে বকুলকে আমি বিষয়টি জানালে কিছুদিন সে আর ফোনে হুমকি দেয়নি। এরপর থেকে বকুল একদিন পরপর আমাদের বাড়ি এলাকায় ঘুরাঘুরি করছিলো। আমার ধারণা- আলমগীরের কথায় বকুল এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

এদিকে আজিজের স্ত্রী শিরিন শিলা জানান, গত শনিবার আমি ও আমার শ্বাশুড়ী বকুলের তার সাথে আরেকজনকে আমাদের বাড়ির পাশে ঘুরতে দেখেছি এবং বকুল আমার সাথে কথা বলার চেষ্টা করছিলো। আমি কোনো কথা না বলে বাড়ির ভিতরে চলে যাই। আমার সন্দেহ তারাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। আইনগত ভাবে দোষীদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে বিষয়টি রহস্যজনক বলে মনে হচ্ছে।

স্বাআলো/আরবিএ