যশোরে পুত্রবধূর মামলায় শাশুড়ি ও তিন ননদ গ্রেফতার

যশোরের মণিরামপুরে পুত্রবধূর দায়ের করা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় শাশুড়ি ও তিন ননদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রবিবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে পলাশী গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পলাশী গ্রামের মৃত গোলাম মোস্তফার স্ত্রী আলেয়া বেগম এবং তাদের তিন মেয়ে রুপা খাতুন, সাবিনা খাতুন ও তহমিনা খাতুন।

আজ দুপুরে গ্রেফতার চরজনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, আলেয়া বেগমের বড় ছেলে হাবিবুর রহমান কয়েক বছর আগে বাঘারপাড়া উপজেলার এক নারীকে বিয়ে করেন। পরে পারিবারিক কলহের জেরে ২০১৯ সালে স্বামী, শাশুড়ি ও তিন ননদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন ওই নারী। পরে হাবিবুরের সাথে তার স্ত্রীর বিচ্ছেদ হয়। সেই মামলায় কয়েকমাস আগে হাবিবুরকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ।

এসআই যোগেশ মণ্ডল বলেন, এ মামলায় হাবিবুরের মা ও তিন বোন পলাতক জীবনযাপন করছিলেন। যে কারণে তাদের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। আদালত থেকে কাগজ পেয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং আজ দুপুরে তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

স্বাআলো/এসএ