চিলমারীতে গুড়িয়ে দেয়া হলো অবৈধ ড্রেজার মেশিন

কুড়িগ্রাম: জেলার চিলমারীতে খালে অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করায় ভেঙে দেয়া হয়েছে সেই ড্রেজার মেশিন।

জানা যায়, চিলমারী উপজেলাধীন রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কোদাল ধোওয়া ব্রিজের নিচ দিয়ে প্রবাহিত মাগুরা খালটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের মাধ্যমে খনন করে দুইপাড় সংস্কারের কাজ চলমান রয়েছে। খননের সময় পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের সামনে ঠিকাদারের যোগসাজশে খালে ড্রেজার বসিয়ে মাটি কাটে প্রভাবশালীরা। এর পর থেকেই ড্রেজার মেশিন বসিয়ে ওই খাল থেকে নিয়মিত মাটি ও বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে একটি বালু মহল। অবৈধভাবে ড্রেজার বসিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বালু ও মাটি বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা।

আইনকে তোয়াক্কা না করে বালু উত্তোলন করায় দুইপাশের পাড়সহ সাধারণ মানুষের কৃষি জমি ভেঙে যাচ্ছে ওই খালে। হুমকির মুখে রয়েছে বসতবাড়িসহ হাজার হাজার একর আবাদি জমি। নিজেদের জমির ক্ষতি হচ্ছে দেখেও প্রভাবশালীদের ভয়ে মুখ খুলতে পারছে না অসহায় কৃষকরা।

কুড়িগ্রামে আকস্মিক ঝড়ে লণ্ডভণ্ড বসতবাড়ি

আজ শনিবার বিভিন্ন মিডিয়ায় চিলমারীতে ড্রেজার বসিয়ে বালু বিক্রি সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রতিবেদনে বলা হয় দীর্ঘদিন থেকে অবৈধ ভাবে বালু বিক্রির মহোৎসব চললেও অজ্ঞাত কারণে নীরব ভূমিকা পালন করেছে, স্থানীয় প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ। যা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দৃষ্টিগোছর হয়।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুবুর রহমান তাৎক্ষনিক সহকারী কমিশনার (ভূমি) গোলাম ফেরদৌসকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে, চিলমারী মডেল থানার ওসি তদন্ত প্রাণ কৃষ্ণসহ থানা পুলিশ এবং এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) গোলাম ফেরদৌস, ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কোদাল ধোওয়া ব্রীজের পশ্চিম পাশ্বে পাঁচটি ও পূর্ব পাশ্বে একটি মিলে মোট ছয়টি ড্রেজার মেশিন গুড়িয়ে দেয়।

স্বাআলো/আরবিএ

.

Author