ইভ্যালি নিয়ে যা বললেন মিথিলা-শবনম ফারিয়া

বিনোদন ডেস্ক: আলোচিত-সমালোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন দেশের জনপ্রিয় তিনজন তারকা। তারা হলেন তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়া। এর মধ্যে তাহসান-মিথিলা যুক্ত হন যথাক্রমে ‘ফেস অব ইভ্যালি’ ও ‘ফেস অব ইভ্যালি লাইফস্টাইল’ হিসেবে। অন্যদিকে ফারিয়া যোগ দেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে।

জনপ্রিয় তারকাদের সমন্বয় করার সুবাদে ইভ্যালির নাম-পরিচিতি উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ে। কিন্তু সেটা তলানিতে ঠেকতে খুব বেশি সময় লাগেনি। গ্রাহকদের পণ্য ডেলিভারি না দেয়া এবং অর্থ আত্মসাতের নানা অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল এবং তার স্ত্রী ও ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের নামে মামলা দায়ের করেন এক ভুক্তভোগী। এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

সন্তান না হওয়ার সমস্যা হয়তো স্বামীর: মিথিলা

রাসেল ও তার স্ত্রীর গ্রেফতারের ঘটনার পর এক এক করে বেরিয়ে আসছে ইভ্যালি সম্পর্কে অনেক তথ্য। যার মধ্যে অন্যতম হলো- তাহসান, মিথিলা এবং ফারিয়া কেউই এখন আর এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত নেই। কেউ ইভ্যালি ছেড়েছেন প্রতিষ্ঠানটির বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য, কেউ ছেড়েছেন লেনদেনে অসঙ্গতির কারণে।

চলতি বছরের মার্চে ইভ্যালিতে যোগ দেন তাহসান। এরপর মে মাসেই তিনি চুক্তি বাতিল করে সরে আসেন। তবে চুক্তির শর্ত অনুসারে বিষয়টি প্রকাশ করেননি।

এদিকে মিথিলাও জানালেন একই তথ্য। তিনি ইভ্যালিতে শুভেচ্ছাদূত হিসেবে যোগ দেন গত ১৫ মে। ওই দিন তাহসানসহ ইভ্যালির একটি বিশেষ লাইভে অংশ নেন তিনি। এর দুই মাস পর তিনিও চুক্তি বাতিল করেন।

ভক্তের বিয়ের প্রস্তাবে সাড়া দিলেন শবনম ফারিয়া!

ইভ্যালির সঙ্গে না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে মিথিলা বলেন, ‌‘আমি জয়েন করার দুই মাসের মধ্যে দেখি নানা জটিলতা। আগে তো এতো কিছু দেখতে পাইনি। তবে আমি চাই না এই সময়ে ইভ্যালি রিলেটেড কোনো খবরে আসতে। আমার আরো অনেক কাজ আছে, সেগুলো নিয়েই এখন ব্যস্ত আমি।’

শবনম ফারিয়া মাস তিনেক আগে ইভ্যালিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত এক টাকাও পাননি প্রতিষ্ঠানটি থেকে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের প্রথম দিকেই ইভ্যালি থেকে পদত্যাগ করেছেন ফারিয়া। যদিও তিনি নিজ মুখে সেটা স্বীকার করছেন না। কারণ প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে তার চুক্তিই ছিলো এমন।

পরীমনির অশোভন আচরণ নিয়ে যা বললেন সোহেল তাজ

ফারিয়ার ভাষ্য, ‘ইভ্যালির সঙ্গে আমার থাকা না থাকার বিষয়টি মিডিয়ায় আসুক, সেটা চাই না। আমার কোনো স্টেটমেন্টের কারণে প্রতিষ্ঠানটির ক্ষতি হোক, সেটা চাই না। আমি এরমধ্যে অন্য একটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে জবের বিষয়ে আলাপ করছি। নতুন জবে জয়েন করলে খবরটি সবাইকে জানাতে চাই।’

স্বাআলো/এস