দুই বন্ধুর দাফনও হলো পাশাপাশি

জেলা প্রতিনিধি, চুয়াডাঙ্গা: জেলার আলমডাঙ্গায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত দুই বন্ধু সজিব ও মারুফকে পাশাপাশি দাফন করা হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাতে উপজেলার নতিডাঙ্গা দক্ষিণপাড়া কবরস্থানে তাদের দাফন করা হয়। তারা দুইজনই সপ্তগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিলো। উপজেলার বাড়াদি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ওবাইদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাত পৌনে ৮টার দিকে জানাজার পর মারুফের মরদেহ গ্রাম্য করবস্থানে দাফন করা হয়। পরে রাত ৯টার দিকে মারুফের কবরের পাশেই সজিবের লাশ দাফন করা হয়।

এদিন বেলা পৌনে ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার হাজরাহাটি পটলা পীরের মাজারের কাছে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুইজন নিহত এবং তিনজন আহত হন। এ সময় হতাহতদের তাৎক্ষণিক পরিচয় না পাওয়া গেলেও দুপুরে পরিবারের সদস্যরা তাদেরকে শনাক্ত করেন। নিহতরা হলেন- আলমডাঙ্গা উপজেলার বাড়াদি ইউনিয়নের নতিডাঙ্গা গ্রামের দক্ষিণপাড়ার আকুব্বর হোসেনের ছেলে মারুফ হোসেন (২০) একই এলাকার শরিফের ছেলে সজিব (২০)।

মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ২ জনের, আহত ৩

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, হাজরাহাটি পটলা পীরের মাজারের কাছে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় অপর মোটরসাইকেল ও আলমসাধু চালকসহ এক যাত্রী আহত হয়েছেন। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ সুতরহাল শেষে বিকেলে দুই পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

স্বাআলো/আরবিএ