একটি প্রশংসাপত্রের দাম ৫০০ টাকা!

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের বাঘারপাড়া ডিগ্রী কলেজে শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্র প্রদানে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রশংসাপত্র বাবদ প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫০০ টাকা করে অর্থ আদায় করছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। এতে নিরুপায় হয়ে পড়েছে শিক্ষার্থীরা। এক প্রকার বাধ্য হয়ে টাকা দিয়ে প্রশংসাপত্র নিতে হচ্ছে তাদের। দীর্ঘদিন ধরে এমন অনিয়ম চললেও উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি।

এর আগে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে এ্যাসাইনমেন্ট বাবদ প্রায় লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠে। পরে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে টাকা নেয়া বন্ধ হয়। এছাড়াও কলেজে ভর্তি ও পরীক্ষার ফরম পূরণেও অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

মোহাম্মদ আলী, শাহাবুদ্দীন, জুন্নুন হুসাইনসহ একাধিক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, ৫০০ টাকার কমে কোন শিক্ষার্থীকে প্রশংসাপত্র দেয়া হচ্ছে না। বিভিন্ন কলেজে একই রকম নিয়মে টাকা নিচ্ছে এমন অযুহাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। টাকা না দিলে প্রশংসাপত্র দেয়া হচ্ছে না।

বাঘারপাড়ায় নির্বাচনী প্রচারণায় যাওয়ার পথে মৃত্যু

বাঘারপাড়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মতিন অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘কলেজ পরিচালনা পরিষদের (গভর্নিং বডি) সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রশংসাপত্র বাবদ পাঁচশ টাকা করে নেয়া হচ্ছে।’

কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি রাজিব রায় বলেন, ‘টাকা নেয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকরাম হোসেন জানান, প্রশংসাপত্র বাবদ টাকা নেয়ার কোনো নিয়ম নেই। যদি কোনো প্রতিষ্ঠান টাকা নিয়ে থাকে তাহলে তারা আইন অমান্য করেছেন।

জানতে চাইলে যশোর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা একেএম গোলাম আযম বলেন, ‘এ ব্যাপারে যা ব্যবস্থা নেয়ার ডিজি স্যারই নেবেন।’

স্বাআলো/আরবিএ