ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ১১ ইউপির ৮ টিতেই নৌকার জয়

জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ: কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ব্যাপক উৎসব আমেজের মধ্যে দিয়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল থেকেই প্রতিটি ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্রেই ছিলো মহিলা ভোটারদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। সেই সাথেই ছিলো প্রশাসনের নজিরবিহীন নিরাপত্তা বেষ্টনী। এবারে নির্বাচনের ফলাফলে আওয়ামী লীগ থেকে ৮ জন, আ.লীগ বিদ্রোহী ২ জন ও স্বতন্ত্র থেকে ১ জন (হিজড়া সম্প্রদায়ের) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

নড়াইলের কালিয়ায় ১২ ইউপির ৯ টিতেই বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, বেসরকারি ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ীরা হলেন ১নং সুন্দপুর দূর্গাপূর ইউনিয়নে ওহিদুজ্জামান ওদু (নৌকা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ২নং জামাল ইউনিয়নে মোদাচ্ছের হোসেন (নৌকা), ৩ নং কোলা ইউনিয়নে আলাউদ্দিন আল আজাদ (আ.লীগ বিদ্রোহী), ৪নং নিয়ামতপুর ইউনিয়নে রাজু আহম্মেদ রনি লস্কর (নৌকা), ৫নং সিমলা রোকনপুর ইউনিয়নে নাছির চৌধুরী (আ.লীগ নৌকা), ৬নং ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নে হিজড়া সম্প্রদায়ের নজরুল ইসলাম রিতু (স্বতন্ত্র), ৭নং রায়গ্রাম ইউনিয়নে আলী হোসেন অপু (নৌকা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ৮নং মালিয়াট ইউনিয়নে আজিজুল খাঁ (আ.লীগ বিদ্রোহী), ৯নং বারবাজার ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ (নৌকা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ১০নং কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়নে আয়ুব হোসেন খান (নৌকা) ও ১১ নং রাখালগাছী ইউনিয়নে মহিবুল ইসলাম মন্টু (নৌকা)।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮৭ হাজার ৮২৫ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৯৫ হাজার ৩৭৪ জন এবং নারী ভোটার ৯২ হাজার ৪৫১ জন। এবারে ইউপি চেয়ারম্যান পদে ২৯ জন, পুরুষ সদস্য পদে ৩১৫ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। মোট ভোটকেন্দ্র ছিলো ১০৪টি।

উল্লেখ্য, এবারে আইনশৃংখলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে ছিলো প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট টহল। প্রতিটি কেন্দ্রে ৪ জন পুলিশ সদস্য, ১৭ জন আনসার সদস্য মোতায়েন এবং উপজেলাজুড়ে বিশেষ নিরাপত্তায় ৬ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেন।

স্বাআলো/এসএ