খুলনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

খুলনা ব্যুরো: খুলনা মহানগরীর খালিশপুরে মহুয়া খাতুন (২০) নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ তিনি নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষে পড়তেন।

মহুয়া বাগেরহাট সদর থানা এলাকার শাহাদাত হোসেনের মেয়ে। খালিশপুর নানা বাড়িতে থেকে তিনি পড়াশুনা করতেন।

খালিশপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শওকত আলী জানান, মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুর ও রাতে কোনো খাবার গ্রহণ করেনি মহুয়া। রাতে ঘরের দরজা দিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। বুধবার সকাল গড়িয়ে দুপুরেও ডাকাডাকি করলে ভেতর থেকে কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে পুলিশে খবর দেয়া হয়। সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। সুরাতহাল রির্পোট তৈরি করে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সদ্য ভর্তি হওয়া জবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, আত্মহত্যার ঘটনার আগে মহুয়া একটি নোট লিখে গিয়েছেন। তাতে পরিবারের এক সদস্যের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করে বিভিন্ন কথা লেখা হয়। এছাড়াও সেই সদস্যকে তার মৃত মুখ দেখতে বারণ করা হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মহুয়ার মা ছোটবেলায় মারা যায়। এর কিছুদিন পর তার বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এরপর নানা বাড়ি খালিশপুর থেকেই লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। বাবার সঙ্গে মনমালিন্য হয়ে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করছেন তার পরিচিতজনরা। তাছাড়া মৃতের শরীরে কোনো আঘাতে চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

স্বাআলো/এস

.