মণিরামপুরে পুলিশের মোটরসাইকেল চুরি!

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের মণিরামপুরে জুম্মার নামাজ পড়তে ঢুকে দুটি পালসার মোটরসাইকেল খুইয়েছেন দু ব্যক্তি।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার ষোলখাদা ও রাজগঞ্জ বাজারে পৃথক ঘটনা দুটি ঘটে। হারানো মোটরসাইকেল দুটির একটির মালিক ঝাঁপা পুলিশ ক্যাম্পের সদস্য আব্দুল লতিফ। অপরটির মালিক নোয়ালী গ্রামের গোলাম কাদের।

এদিকে বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে ষোলখাদা বাজারে বাংলা লিংক টাওয়ারে চারটি ব্যাটারি চুরি হয়েছে। সেই ঘটনা তদন্তে গিয়ে নিজের মোটরসাইকেল খোয়ালেন কনস্টেবল আব্দুল লতিফ।

লোকবল সংকটে মণিরামপুর বিএডিসি অফিস, চরম বিপাকে গ্রাহকরা

ঝাঁপা ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই শেখ আকতারুল ইসলাম চুরির ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ষোলখাদা গ্রামে টাওয়ারে চুরির ঘটনা শুনে ফাঁড়ির কনস্টেবল আব্দুল লতিফকে সাথে নিয়ে তার মোটরসাইকেলে চড়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। সেখানে চুরির বিষয়ে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে মোটরসাইকেল রেখে পাশের মসজিদে জুম্মার নামাজ পড়তে ঢুকি। বেরিয়ে দেখি আমাদের মোটরসাইকেলটি নেই।

এদিকে একই সময়ে রাজগঞ্জ বাজার এলাকায় নিজামের চাতালের সামনে নিজের পালসার মোটরসাইকেল রেখে পাশের মসজিদে নামাজ পড়তে যান নোয়ালী গ্রামের গোলাম কাদের। নামাজ শেষে ফিরে তিনি আর মোটরসাইকেলটি পাননি।

মণিরামপুরে সরকারি গাছ কেটে আত্মসাতের চেষ্টা

রাজগঞ্জ ক্যাম্পের সহকারী এএসআই আজমল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বেশ কদিন ধরে মণিরামপুরে মোটরসাইকেল চুরির হিঁড়িক পড়েছে। প্রায়ই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটছে। তবে এসব ঘটনায় জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। দ্রুত এ চোর চক্রকে আইনের আওতায় আনার দাবি ভুক্তভোগীদের।

মণিরামপুর থানার ওসি নূর-ই-আলম সিদ্দীকি বলেন, মোটরসাইকেল চোর চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

স্বাআলো/এস