বেনাপোল দিয়ে রফতানি বন্ধ করলো ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেনাপোলের বিপরীতে ভারতের পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে পণ্য রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে ভারত থেকে আমদানি বন্ধ করে দেন ব্যবসায়ীরা। তবে ভারতে পণ্য রফতানি চালু রেখেছে বাংলাদেশ।

বাণিজ্য সম্পাদনে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) কার্ডবিহীন ট্রান্সপোর্ট ও সিঅ্যান্ডএফ সদস্যদের বন্দরে ঢুকতে না দেয়ায় কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

এর আগে, একই দাবিতে শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভারত থেকে কোনো পণ্যবাহী ট্রাক বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করেনি। দুদিন পর পর নানা সমস্যায় এ পথে রফতানি বন্ধ করে দেয়ায় ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বনগাঁ গুডস ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক বুদ্ধদেব বিশ্বাস জানান, এতোদিন আমরা সংগঠনের পরিচয়পত্র নিয়ে পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রফতানির কাজ করে আসছিলাম। শনিবার পেট্রাপোল বিএসএফ থেকে বলা হয় ভারতীয় কাস্টমস, বন্দর, সিএন্ডএফ এজেন্ট স্টাফ ও ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ স্বাক্ষরের পরিচয়পত্র ছাড়া কাউকে বন্দর এলাকায় প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। এ কারণে শনিবার আট ঘণ্টা বন্ধ থাকে আমদানি-রফতানি। পরে এক বৈঠকে আলোচনার পর পুনরায় চালু হয় আমদানি-রফতানি। আমরা সময় চাইলেও তারা সোমবার পর্যন্ত সময় দেয়। দুই দিনের মধ্যে চারটি সংস্থা থেকে পরিচয়পত্র সংগ্রহ করাও কঠিন। সে কারণে বাধ্য হয়ে বাংলাদেশে রফতানি পণ্য বন্ধ করে দেয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই। সবার সাথে কথা বলে রফতানি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

বেনাপোল দিয়ে স্টুডেন্ট ভিসায় ভারতে প্রবেশ বন্ধ

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান জানান, হঠাৎ করে পেট্রাপোল বন্দরে নিরাপত্তায় নিয়োজিত বিএসএফ সদস্যরা সিদ্ধান্ত নেন কার্ডবিহীন কোনো ভারতীয় ট্রান্সপোর্ট ও সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ বন্দরে প্রবেশ করবে না। এতে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা বিঘ্ন ঘটায় শনিবার আট ঘণ্টা বন্ধ থাকে ভারত থেকে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম। সোমবার আবারো একই দাবিতে রফতানি বন্ধ করে দেন ভারতীয় ট্রান্সপোর্ট শ্রমিকরা।

স্বাআলো/এস

.