যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর ব্যুরো: রংপুর নগরীতে যৌতুকের দাবিতে জান্নাতি (২০) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

এঘটনায় নিহতের পিতা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে জান্নাতির স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়িসহ চারজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন রংপুর মহানগরের তাজহাট থানার ওসি আখতারুজ্জামান।

এর আগে বুধবার দুপুর ২টার দিকে নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ডের তামপাট এলাকার ধর্মদাস লক্ষণপাড়া এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে জান্নাতির মরদেহ উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান পুলিশ।

ঝিনাইদহে পুকুর থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

জান্নাতি একই এলাকার আতাউর রহমানের ছেলে তুহিনের স্ত্রী।

জান্নাতির বাবা জাহাঙ্গীর আলম জানান, দুই বছর আগে যৌতুক দিয়ে তুহিনের সঙ্গে জান্নাতির বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর আরো যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই জান্নাতিকে নির্যাতন করতো তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি। ঘটনার দিন আবারো নির্যাতন করে অন্তঃসত্ত্বা জান্নাতিকে পিটিয়ে হত্যা করে তারা।

ওসি বলেন, জান্নাতির গলায় এবং পাঁজরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় জান্নাতির বাবা বাদী হয়ে তুহিনসহ চারজনকে আসামি করে তাজহাট মেট্রোপলিটন থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

স্বাআলো/এস

.

Author
হারুন উর রশিদ সোহেল, রংপুর
ব্যুরো প্রধান