বাগেরহাটে নবজাতককে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার পর মাটি চাপা!

বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় মল্লিকের বেড় এলাকায় জন্মের পর নবজাতককে পানিতে ফেলে হত্যা করে মৃতদেহ মাটি চাপা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় রামপাল থানায় মামলা করেছেন প্রতিবেশী নারী আম্বিয়া বেগম।

ওই মামলা সূত্রে জানা গেছে, রামপাল উপজেলার মল্লিকের বেড় গ্রামের শাহাজান হাওলাদারের জামাই আসামি আল আমীন সেখ তার চাচাত শালীকা জনৈক তরুণীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে ওই তরুণী ৮/৯ মাস পূর্বে গর্ভবতী হয়ে পড়েন। ঘটনার দিন শুক্রবার (১৪ মে) সকাল ১১ টার দিকে ওই তরুণীর প্রসব বেদনা শুরু হলে চিকিৎসার জন্য গ্রাম্য চিকিৎসকের নিকট রওনা দেয়। পথিমধ্যে স্থানীয় জনৈক কবীর বাড়ির সামনে সাড়ে ১১ টার দিকে ওই তরুণী ছেলে সন্তান প্রসব করে। এরপর তরুণীর চাচা শাহাজান ও কথিত প্রেমিক আল আমীন ওই নবজাতককে পাশের খালের পানিতে ফেলে দেয়। পরে নবজাতকটি মারা গেলে খালের পাড়ে মাটি চাপা দেয়া হয়।

স্থানীয়রা ঘটনা দেখতে পেয়ে প্রথমে স্থানীয় সুমন মেম্বরকে ও রামপাল থানা পুলিশকে খবর দিয়ে ঘাতক শাহাজাহান ও আল আমীনকে পুলিশে সোপর্দ করেন। এলাকার বহু মানুষ ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করেন। এ ঘটনায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সামসুদ্দীন বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
আজাদুল হক, বাগেরহাট
জেলা প্রতিনিধি