নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে বাংলাদেশে গম রফতানি করবে ভারত

নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে শিগগিরই ১০ লাখ টন গম রফতানি করতে যাচ্ছে ভারত। এর মধ্যে বাংলাদেশে ৫ থেকে ৬ লাখ টন গম রফতানি করবে দেশটি।

শুক্রবার (২৭ মে) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইকোনমিক টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বাণিজ্যমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল সুইজারল্যান্ডের দাভোস থেকে দেশে ফিরলে এ বিষয় নিয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অভ্যন্তরীণ বাজারে মূল্যবৃদ্ধিতে লাগাম টানতে ১৩ মে গম রফতানির উপর বিধিনিষেধ আরোপ করে ভারত। সে সময় বলা হয়েছিলো, বিজ্ঞপ্তি দেয়ার আগে যেসব সংস্থা রফতানির উদ্যোগ নিয়ে ঋণপত্র (এলসি) খুলেছিলো, তাদের রফতানির সুযোগ দেয়া হবে। এছাড়াও ওই বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিবেশী দেশগুলোকে বিশেষ সুবিধা দেয়ার কথা জানানো হয়েছিলো।

ইকোনমিক টাইমসের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, বাংলাদেশে প্রধানত সড়ক ও রেলপথে গম আসবে। তবে কিছু পরিমাণ গম সমুদ্রপথেও আসতে পারে। ১০ লাখ টন গম রফতানির জন্য ভারতের ডিরেক্টর জেনারেল অব ফরেন ট্রেড (ডিজিএফটি) কেন্দ্রীয় খাদ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে ইতোমধ্যেই অনুমতি চেয়েছে।

কলকাতাভিত্তিক রপ্তানিকারকের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই মুহূর্তে ভারত থেকে গম আমদানি করতে বিশেষ উৎসাহী নয় বাংলাদেশ সরকার। কারণ বাংলাদেশের ওয়্যারহাউসে স্থানাভাব রয়েছে। বাংলাদেশ আগে মজুত চাল বিক্রি করতে চায়, যাতে সেই জায়গায় আমদানি করা গম মজুত করা যায়।

স্বাআলো/এস

.

Author
আন্তর্জাতিক ডেস্ক