শনিবার মুখোমুখি হচ্ছে দুই পরাশক্তি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

কাতার বিশ্বকাপকে সামনে রেখে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ফুটবল বিশ্বের দুই শক্তিধর ক্লাব ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। আগামী ১১ জুন (শনিবার) অনুষ্ঠিত হবে আইকনিক মেলবোর্ন স্টেডিয়ামে। সম্প্রতি বিষয়টি নিশ্চিত করে ভিক্টোরিয়ান সরকার।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য এজ এবং সিডনি মর্নিং হেরাল্ড তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এ ম্যাচে উপস্থিত থাকতে পারেন সময়ের দুই সেরা তারকা লিওনেল মেসি ও নেইমার। এছাড়া সম্ভাব্য সকল তারকাও উপস্থিত থাকবেন বলে প্রত্যাশা করছে তারা।

মেলবোর্নের এই স্টেডিয়ামে এর আগেও লড়েছে দুই দল। পাঁচ বছর আগে এক প্রীতি ম্যাচ খেলতে এই মাঠে নেমেছিলো তারা। সে ম্যাচে ৯৫ হাজারের বেশি দর্শক উপস্থিত ছিলো মাঠে। মেসি-নেইমারদের উপস্থিতিতে এবারো এমন কিছুই হবে বলে আশা করছে স্থানীয় সরকার।

দেশটির ট্যুরিজম, স্পোর্ট অ্যান্ড মেজর ইভেন্টস মন্ত্রী মার্টিন পাকুলা এ প্রসঙ্গে বলেছেন, বিশ্বের সবচেয়ে সফল দুটি ফুটবল দলের এমসিজিতে ফেরা বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রীড়া শহর ও অস্ট্রেলিয়ার ইভেন্ট রাজধানী হিসেবে আমাদের অবস্থানকে আরো শক্ত করে। ফুটবল বৈশ্বিক ইভেন্ট হিসাবে পরিচিত এবং এই ক্যালিবারের একটি ম্যাচ মেলবোর্নে লাখ লাখ চোখ থাকবে এবং ভিক্টোরিয়ায় হাজার হাজার দর্শককে আকর্ষণ করবে।

এ ম্যাচে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুই দলই সময়ের সম্ভাব্য সেরা তারকাদের পাঠাবেন বলে বিশ্বাস করেন পাকুলা, আমরা যে আলোচনা করেছি তার ভিত্তিতে অবশ্যই আমাদের প্রত্যাশা, মেসি এবং নেইমারের মতো খেলোয়াড়রা এখানে থাকবেন। আমরা শতভাগ নিশ্চিত নই। তবে আমাদের বলা হয়েছে বিশ্বকাপের সামনে গুরুত্বপূর্ণ প্রস্তুতির জন্য উভয় দলই খুব শক্তিশালী স্কোয়াড পাঠাবে।

এবার কাতার বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে এক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যায় ল্যাতিন আমেরিকার দুই পরাশক্তি ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচে। ম্যাচ শুরুর পাঁচ মিনিট পর তা পণ্ড করে দেয় ব্রাজিলিয়ান স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্তারা। বাধ্য হয়েই সেই ম্যাচটি স্থগিত করে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল। দুই দলের একটি প্রীতি ম্যাচ আয়োজনের আলোচনা চলছিলো তখন থেকেই।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
স্পোর্টস ডেস্ক