যশোরে এমপি নাবিলে একাট্টা হচ্ছেন আ.লীগের নেতাকর্মীরা

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের গ্রুপিং রাজনীতিতে দিনে দিনে পাল্লা ভারী হচ্ছে যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদের। এক সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার গ্রুপ শক্তিশালী থাকলেও এখন কাজী নাবিল আহমেদ রীতিমতো আধিপত্য বিস্তার করছেন। একে একে নেতারা সদলবলে শাহীন চাকলাদার পক্ষ ত্যাগ করে নাবিল আহমেদে যুক্ত হচ্ছেন।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক ও যশোর পৌরসভার কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাজাহান কবির শিপলু, আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন রাজিব, সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, শহর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ বিপুল সংখ্যক নেতা কাজী নাবিল আহমেদের সাথে মতবিনিময় করেন। তারা ঢাকায় গিয়ে কাজী নাবিল আহমেদের অফিসে এই মতবিনিময় করে আনুষ্ঠানিকভাবে তার সাথে রাজনীতি করার ঘোষণা দেন।

এসময় যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল, লেবুতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলীমুজ্জামান মিলন, যশোর পৌরসভার কাউন্সিলর সাহিদুর রহমান রিপন, নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাজু আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, এক সময় যশোর আওয়ামী লীগের একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করা শাহীন চাকলাদার বর্তমানে বেশ খানিকটা কোনঠাসা হয়ে পড়েছেন। ২০১৯ সালে উপজেলা নির্বাচনের কিছুদিন পর তার পক্ষ ত্যাগ করেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল। এরপরই মূলত শাহীন চাকলাদার পক্ষে ভাঙ্গন শুরু হয়। একে একে বেরিয়ে আসেন নেতাকর্মীরা। যারা সবাই কাজী নাবিল আহমেদের পক্ষে এখন রাজনীতি করছেন।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার যশোর জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক শেখ জাহিদ হোসেন মিলন, সদস্য ফিরোজ আলম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির শিপলু, যশোর পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন রাজীব, যশোর শহর যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক কাউন্সিলর আজিজুল হক, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারা বেগম, যশোর শহর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেহেনা পরভীন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, যুবলীগ নেতা শেখ উজ্জ্বল, জুলফিকর আলী ভুট্টো, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য আলিমুজ্জামান আলী, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুর সালামসহ দুই শতাধিক নেতাকর্মী তার সাথে মতবিনিময় করেন। এ সময় তারা বর্তমান সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে এবং যশোর সদর উপজেলায় উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখতে কাজী নাবিল আহমেদের সাথে রাজনীতি করবেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক ও যশোর পৌরসভার কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলন বলেন, ‘একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ কাজী নাবিল আহমেদ। যশোরকে স্বস্তি ও শান্তির শহরে রূপান্তরের পাশাপাশি ব্যাপক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন তিনি। জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তিনি সদর উপজেলার প্রতিটি এলাকায় পৌঁছে দিতে নিরলস কাজ করছেন। এজন্য আমরা তার হাতকে শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজনীতি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বৃহস্পতিবার তার সাথে মতবিনিময় করেছি। খুব দ্রুত যশোরে বৃহত্তর জনসভা করা হবে।’

.

Author
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর