কুড়িগ্রামে ৯০টি শিখন কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও বই বিতরণ

কুড়িগ্রামে কখনো স্কুলে ভর্তি না হওয়া ও ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষার মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে একযোগে ৯০টি শিখন কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন, উপনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো সহযোগিতায় শনিবার (২ জুলাই) ছিন্নমুকুল বাংলাদেশ কুড়িগ্রামের বাস্তবায়নে উলিপুরের বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের সরকারপাড়া-২ উপানুষ্ঠানিক শিখন কেন্দ্রের উদ্বোধন ও ছাত্র-ছাত্রীদের বই বিতরণ করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উলিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল কুমার, বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী পরিচালক জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো কুড়িগ্রাম সাইদুর রহমান, ছিন্নমুকুল বাংলাদেশ, কুড়িগ্রামের সিনিয়র প্রোগাম ম্যানেজার সুশান্ত পাল, জেলা প্রোগাম ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম, ফিন্যান্স ম্যানেজার জুয়েল ইসলাম, প্রোগ্রামসহ কর্মকর্তাগণ।

এই স্কুল গুলো তিন বছর মেয়াদী হবে এখানে ৮ থেকে ১৪ বছরের যে সমস্ত শিশু কখনো স্কুলে যায়নি তাদের অর্ন্তভুক্ত করে শিক্ষার মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনা হবে। একটি করে স্কুলে শিক্ষার্থী থাকবে ৩০ জন এবং তাদের জন্যিএকজন শিক্ষক থাকবেন। এরকম ১৪টি স্কুল মনিটরিং করার জন্য একজন সুপারভাইজার থাকবেন। এছাড়া উপজেলা ও জেলা প্রোগাম ম্যানেজার থাকবেন।

নদী ও চরাঞ্চল বেষ্টিত কুড়িগ্রামে ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষার মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনতে এই কর্মসূচি বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন অতিথিরা।

স্বাআলো/এসএস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম