বুড়িমারী স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকবে ৭ দিন

লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশন ও স্থলবন্দরে ঈদুল আজহা ও সাপ্তাহিক ছুটি মিলিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকবে ৭ দিন।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) দুপুরে বুড়িমারী কাস্টমস ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট (সিঅ্যান্ডএফঅ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ছায়েদুজ্জামান ছায়েদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ঈদ উপলক্ষে আগামী শনিবার (৯ জুলাই) থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ছয়দিন ও ১৫ জুলাই সাপ্তাহিক ছুটিসহ মোট সাতদিন আমদানি-রপফতানিসহ সব ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ রাখার বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আগামী ১৬ জুলাই থেকে যথানিয়মে আবারো আমদানি-রফতানিসহ সব ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালু হবে।

এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশন (কাস্টমস কর্তৃপক্ষ), বন্দর কর্তৃপক্ষ, বুড়িমারী স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশন, বুড়িমারী বিজিবি কমান্ডার, পুলিশ ইমিগ্রেশন, লালমনিরহাট চেম্বার অব কর্মাস, সোনালী ব্যাংক, ভারতীয় চ্যাংরাবান্ধা স্থল শুল্ক স্টেশন কাস্টমস, বিএসএফ কমান্ডার, চ্যাংরাবান্ধা আমদানি- রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশন, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন ও ভুটান এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশনকে দেয়া হয়েছে।

তবে এ সময়ে বন্দর দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছেন বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশের কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন।

তিনি বলেন, বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশন ও স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও বুড়িমারী অভিবাসন চৌকি হয়ে পাসপোর্ট ও ভিসাধারী যাত্রীদের যাতায়াত স্বাভাবিক ও চালু থাকবে।

বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশন কাস্টমস সহকারী কমিশনার (এসি) জে এম আলী আহসান বলেন, সিঅ্যান্ডএফ ও আমদানি-রফতানিকারক এবং ব্যবসায়ী ও পরিবহনে নিযুক্ত ব্যক্তিরা কাজ বন্ধ রাখলে এমনিতেই স্থল শুল্ক স্টেশন ও বন্দরের কাজ থাকে না। তবে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী আমাদের কাস্টমস কার্যালয় খোলা থাকবে।

স্বাআলো/এসএস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, লালমনিরহাট