কাতার বিশ্বকাপ: ম্যাচ চলাকালীন মদ্যপান নিষিদ্ধ

এক যুগ আগে কাতার ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে অনেক সময়ই উঠেছে প্রশ্নটি- গ্যালারিতে অ্যালকোহল পান করা যাবে কি? জবাবটা সম্ভবত এবার মিললো।

সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্সের খবর, বিশ্বকাপের সময় স্টেডিয়ামগুলিতে নিষিদ্ধ থাকবে অ্যালকোহল। তবে কিছু ম্যাচের আগে ও পরে মাঠের বাইরে বিয়ার বিক্রির অনুমতি দেওয়া হবে

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) টুর্নামেন্টের পরিকল্পনার সঙ্গে যুক্ত একজনের রয়টর্স জানায়, পরিকল্পনাগুলি এখনো চূড়ান্ত হওয়া বাকি। তবে এখন যে আলোচনা হচ্ছে তা হলো, দর্শকদের স্টেডিয়ামে আসার আগে এবং বের হওয়ার সময় বিয়ার পানের অনুমতি দেয়া হবে। তবে ম্যাচ চলাকালীন বা স্টেডিয়ামের ভেতরে বিয়ার পরিবেশন করা হবে না।

কাতার বিশ্বকাপে যৌনতা-মদ্যপানে নিষেধাজ্ঞা, ধরা পড়লে জেল!

আগামী নভেম্বরে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক এই প্রতিযোগীতা। কাতার যেহেতু মুসলিম দেশ, সেখানে আগে থেকেই নিষিদ্ধ প্রকাশ্যে মদ্যপান। তবে ফুটবলের সঙ্গে বিষয়টির অন্যরকম এক সম্পর্ক রয়েছে। যে কারণে সমর্থকদের মদ্যপানের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা নির্ধারণ করে দিয়েছে আয়োজক দেশটি।

বিশ্বকাপ চলাকালীন দর্শকরা কাতারের রাজধানী দোহার আল বিদ্দা পার্কের মূল ফিফা ফ্যান জোনের নির্দিষ্ট কিছু অংশে নির্দিষ্ট সময়ে বিয়ার কিনতে পারবেন। এছাড়া স্টেডিয়াম ও প্রধান ফ্যান জোন থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে দোহা গলফ ক্লাবের একটি অব্যবহৃত কোণে ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার দর্শকের জন্য অ্যালকোহলও পাওয়া যাবে।

এই বিষয়য়ে কাতারের সুপ্রিম কমিটি ফর ডেলিভারি অ্যান্ড লিগ্যাসি ও আয়োজকদের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘অ্যালকোহল ইতিমধ্যেই কাতারে হোটেল ও বারগুলির মতো অনুমোদিত এলাকায় পাওয়া যাচ্ছে এবং ২০২২ সালে এর পরিবর্তন হবে না। বাইরের দর্শকদের জন্য টুর্নামেন্ট চলাকালীন বাড়তি অনুমোদিত এলাকায় অ্যালকোহল পাওয়া যাবে।

স্বাআলো/এসএস

.

Author
স্পোর্টস ডেস্ক