মেসি-ম্যারাডোনা নয়, সর্বকালের সেরা পেলে

ফুটবলের কথা আসলে যে কয়টি নাম প্রথম মুখে আসে তাদের মাঝে অন্যতম পেলে, ম্যারাডোনা এবং মেসি। এই তিনজের মধ্য সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় কে তা নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। এক একজন ফুটবল যোদ্ধার দৃষ্টিতে সেরা এক একজন।

দুইবার বিশ্বকাপ শিরোপা ঘরে তুলেছে আর্জেন্টিনা। যার প্রথমটি এসেছিলো ১৯৭৮ সালে ঘরের মাঠে। ওই দলের কোচ ছিলেন চেসার লুইস মেনোত্তি।

আর্জেন্টিনাকে ১ম বিশ্বকাপ জেতানো কোচ মেনোত্তি নিজ দেশের ম্যারাডোনা-মেসিকে সর্বকালের সেরা মানতে নারাজ। তার মতে সর্বকালের সেরা ফুটবলার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ ব্রাজিলের পেলে। তার দেশের কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে অনেকেই সর্বকালের সেরা হিসেবে দাবি করেন, তুলনায় আসেন তার উত্তরসূরী লিওনেল মেসিও। তিনি সেই দাবির সাথে একমত হতে পারেননি।

সম্প্রতি ডি স্পোর্টস রেডিওতে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মেনোত্তি। সেখানে তিনি বলেছেন, পেলে সর্বকালের সেরা, সে ছিলো অতিপ্রাকৃত ও অবিশ্বাস্য। তার জন্য যেকোনো ম্যাচই ছিলো বিশ্বকাপ ফাইনাল। এমনকি ট্রেনিং সেশন হলে, সেটাও।

১৯৬৮ সালে সান্তোসের হয়ে খেলেছিলেন মেনোত্তি। ওই স্কোয়াডে ছিলেন পেলেও। ওই অভিজ্ঞতা জানিয়ে মেনোত্তি বলেছেন, আমার জন্য জন্য তার সঙ্গে একই মাঠে তাকে দেখতে পারা ছিল আনন্দের। সে এমন কিছু করতো যা অন্যরা বুঝতো না। ব্যক্তিগতভাবে আমি তাকে (পেলে) কোনো তুলনায় টানতে চাই না কারণ সে সবার চেয়ে অনেক বড় ব্যবধানে এগিয়ে, অনেক বড়। হ্যাঁ, সবাই হয়তো তাদের সময়ের সেরা। ক্রুইফ, ডি স্টেফানো, ম্যারাডোনা, মেসি; কিন্তু আমার দিক থেকে পেলে তাদের চেয়ে সবসময় এগিয়ে।

স্বাআলো/এস

.

Author
স্পোর্টস ডেস্ক