খুলনার কয়রায় বেড়িবাঁধ ভেঙে কপোতাক্ষের গর্ভে, ১৪ গ্রাম তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা

খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে চারশ ফুট বেড়িবাঁধ কপোতাক্ষ নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে।

রবিবার (১৭ জুলাই) ভোরে ভাটার সময় চরামুখা খালের গোড়ার উত্তর পার্শ্ব দক্ষিণ বেদকাশি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের বেড়িবাঁধ নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, ভাটার সময় হঠাৎ করে ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার বেড়িবাঁধের নিচের মাটি সরে যায়। তখন কপোতাক্ষ নদের নির্মাণাধীন বেড়িবাঁধ ভয়াবহ ভাঙনে পড়ে। তারা আশঙ্কা করছেন রবিবার দুপুরে কপোতাক্ষের জোয়ারে লবণাক্ত পানি ঢুকে পড়লে ঘর-বাড়ি, ফসলি জমি এবং মাছের ঘেরসহ বিভিন্ন স্থাপনা পানিতে তলিয়ে যাবে।

আজ সকাল ১০টার দিকে ওই ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ওসমান গনি খোকন বলেন, ভোরের দিকে ভাটার সময় বেড়িবাঁধে ভাঙ্গন শুরু হয়। যদিও বেড়িবাঁধের ওই স্থানে কয়েকদিন ধরে সংস্কারের কাজ চলছিলো।

তিনি বলেন, আজ এ এলাকায় সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ১২টার জোয়ারের সময় পানি ঢুকলে এই ইউনিয়নের ১৪টি গ্রাম তলিয়ে যাবে। বর্তমানে এলাকাবাসী নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে সংস্কারের কাজ করছি। জানি না কী হবে। প্রায় ৩০ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়বে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী (পুর) মশিউল আবেদীন বলেন, ওখানের বাঁধ দুর্বল ছিলো। প্রায় দেড়শ’ মিটারের মত ভেঙে ক্লোজার তৈরি হয়ে গেছে। এই মূহুর্তে পানি আটকানোর মত কিছু করা সম্ভব না।

স্বাআলো/এসপি

.

Author
খুলনা ব্যুরো