বাগেরহাটে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও জামায়াতের ৬ নেতা কারাগারে

বাগেরহাটে নাশকতা মামলায় জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও জামায়াতে ইসলামীর বিভিন্ন পর্যায়ের ছয়জন নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রবিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে বাগেরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এ আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেনন বিচারক আছাদুল ইসলাম।

কারাগারে যাওয়া নেতারা হলেন- বাগেরহাট জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুজাউদ্দীন মোল্লা সুজন, বাগেরহাট সদর থানা জামায়াতে ইসলামীর সাধারণ সম্পাদক তাজমুল ইসলাম, যাত্রাপুর ইউনিয়ন সভাপতি মাওলানা ফেরদৌস, জেলা ছাত্র শিবিরের সভাপতি আরিফুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা হাসান, রুবেল। এছাড়া অপর এক ব্যক্তির নাম জানাতে পারেনি কোর্ট পুলিশ ও আইনজীবীরা।

বাগেরহাটে মাদক উদ্ধারের নামে গৃহবধুর শ্লীলতাহানির চেষ্টা

যুবদলের সাধারণ সম্পাদকের আইনজীবী শহিদুল ইসলাম বলেন, উচ্চ আদালত থেকে নেয়া জামিনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় আদালতের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকসহ জামায়াতের ৬ নেতাকর্মী আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। আদালত আমাদের জামিন আবেদন না-মঞ্জুর করেন।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক দিলীপ সরকার বলেন, নাশকতা মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ২৬ মে বাগেরহাট সদর উপজেলার ডেমা এলাকায় নাশকতা পরিকল্পনার অভিযোগে জামায়াতের পাঁচ নেতাকর্মীকে আটকসহ ১৬ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামি করে বাগেরহাট মডেল থানায় মামলা দায়ের হয়। পরে আত্মসমর্পণ করা নেতাকর্মীরা উচ্চ আদালত থেকে জামিন নেন।

স্বাআলো/এস

.

Author
আজাদুল হক, বাগেরহাট
জেলা প্রতিনিধি