ডিসি ও ইউএনওদের কাঁধে ৩৫ হাজার স্কুল-কলেজ পরিদর্শনের দায়িত্ব

জেলা প্রশাসক (ডিসি) এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল ও উচ্চমাধ্যমিক কলেজগুলোতে পরিদর্শন ও তদারকি জোরদার করতে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এর ফলে দেশের সাড়ে পাঁচশতাধিক ডিসি এবং ইউএনও ৩৫ হাজারের বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শন ও তদারকির দায়িত্ব পেলেন।

বর্তমানে সরকারি হাইস্কুল, কলেজ ও মাদরাসার প্রধান পদে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারভুক্ত শিক্ষকরা রয়েছেন।

সোমবার (১ আগষ্ট) বিকেলে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, গত ২৮ জুলাই বিভাগ থেকে ডিসি ও ইউএনওদের এ নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

সমন্বয় শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব নাসরিন সুলতানা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, জেলা প্রশাসক সম্মেলনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো তদারকি ও পরিদর্শন কার্যক্রম জোরদার করা প্রয়োজন। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর তদারকি ও পরিদর্শন কার্যক্রম জোরদার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

জানতে চাইলে নাসরিন সুলতানা বলেন, মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর তদারকি ও পরিদর্শন কার্যক্রম জোরদার করতে ডিসি ও ইউএনওদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রমের মানোন্নয়নে উদ্যোগী হতে, কোভিড পরিস্থিতিতে বিকল্প ব্যবস্থায় অনলাইনে বা ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে পাঠদান কার্যক্রম যেন অব্যাহত থাকে সে ব্যবস্থা নিতে এবং অপেক্ষাকৃত দুর্গম এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিতে ডিসিদের নির্দেশ দিয়েছিলেন।

সম্মেলনে ডিসিদের পক্ষ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আর্থিক ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা আনা, মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তদারকিতে উপজেলা শিক্ষা কমিটি গঠন, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা এবং দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি রোধ, যোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগের ক্ষেত্রে অধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষক নিয়োগে পুল গঠনের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিলো। পাশাপাশি ডিসি-ইউএনওদের মাধ্যমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো তদারকি ও পরিদর্শন কার্যক্রম জোরদার করার সিদ্ধান্ত হয়েছিলো।

স্বাআলো/এসএ