ইবিতে হলের ছাত্রকে মারধর

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) জিয়াউর রহমান হলের বৈধ সিটধারী এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তরিকুল ইসলাম তরুণের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার ( ৪ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় হলের ২১১ নম্বর কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী সৈয়দ ফাহিম আবরার (আরাফাত) বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

ভুক্তভোগী সূ্ত্রে, বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে তরিকুল ইসলাম তরুণ প্রায় ২০-৩০ জনকে সাথে নিয়ে জিয়াউর রহমান হলের ২১১ নম্বর কক্ষে ঢোকে। এসময় তরিক রুমের বৈধ শিক্ষার্থী আরাফাতকে রুম থেকে বের হয়ে যেতে বলে। এ নিয়ে তাদের মাঝে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে রড দিয়ে আরাফাতকে আঘাত করে তরুণ। আঘাত ঠেকাতে গেলে হাতের তালুতে আঘাত পায় আরাফাত। এসময় তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় ও কিল ঘুষি মারে তরুণ ও তার সহযোগীরা। একপর্যায়ে রুম থেকে পালিয়ে যায় আরাফাত। এসময় তরুণ ও তার সহযোগীরা রুম তালাবদ্ধ করে রেখে যায়।

অভিযুক্ত তরিকুল ইসলাম তরুণ বলেন, আরাফাত ছাত্রলীগের পদপ্রাপ্ত সদস্যদের নিয়ে বাজে কথা বলে বেড়ায়। আমরা ৪-৫ জন তাকে এ বিষয়ে জিঙ্গেস করতে গেলে সে রড দিয়ে আমাদের মারতে উদ্যত হয়। আমরা শুধু প্রতিহত করি।

এ বিষয়ে নাসিম আহমেদ জয় বলেন, বিষয়টা আমরা শুনেছি। এটা একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। খুর শিগগিরই এর সমাধান করা হবে।

প্রক্টর অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর কাছ থেকে আমরা অভিযোগ পেয়েছি। শুক্রবার হল প্রভোস্ট ও প্রক্টরিয়াল বডির সাথে বসে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

স্বাআলো/এস

.

Author
মোর্শেদ মামুন, ইবি প্রতিনিধি