উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ঔষধ চুরি, এলাকায় ক্ষোপের সৃষ্টি

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ঔষধ চুরির ঘটনায় এলাকায় ক্ষোপের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তরিঘরি করে তথ্য সংগ্রহের কাজে তৎপর থাকা সাংবাদিকের নামে থানায় মিথ্যা এবং সাজানো অভিযোগ দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাইদুল ইসলাম জিডি করেছে। এ ঘটনায় সাংবাদিক মহলে তীব্র ক্ষোপের সৃষ্টি হয়েছে।

কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীর সহায়তায় একটি চক্র সরকারি ঔষধ দীর্ঘদিন ধরে চুরি করে আসছিলো। গত ২৩ জুলাই আনুমানিক সময় বিকাল ৪টা ৩৪ মিনিটে উক্ত হাসপাতালের (আর,এম,ও) ডাঃ মাইদুল ইসলামের কক্ষে বস্তায় দামিদামি সরকারি ঔষধ ভর্তি করছিলো এ সময়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে সাংবাদিক আশিকুর রহমান (আর,এম,ও) ডাঃ মাঈদুল ইলামের কক্ষে যায় এবং চোরচক্রের এক হোতাকে বস্তায় ঔষুধ ভরানোর কাজে ব্যস্ত অবস্থায় দেখতে পায়। এ সময় উৎসুক জনতা তার কক্ষের সামনে ভিড় করে এবং চুরির সাথে জড়িতদের পুলিশের হাতে সোপর্দ করার দাবী তোলে। জনগণ সাংবাদিক আশিকুর রহমানকে ঔষুধ চুরির ভিডিও চিত্রধারণ করায় ধন্যবাদ জানায়।

সাংবাদিক আশিকুর রহমান গত ২৪ জুলাই তারিখে সিভিল সার্জন কুড়িগ্রাম বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছে।

এতে হাসপাতালের (আর,এম,ও) ডাঃ মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে সরকারি ঔষধ বিক্রয়ের প্রক্রিয়া চালানোর অভিযোগ করা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সাংবাদিককে জানান- সাংবাদিক ও জনতার বাধায় ডাঃ মাইদুল ইসলাম বস্তা ভর্তি মুল্যবান ঔষধ বিক্রি করতে না পেরে এবং ঘটনা ভিন্ন দিকে চালানোর উদ্দেশ্যে থানায় মিথ্যা কাহিনী সাজিয়ে সাংবাদিক আশিকুর রহমানের নামে সাধারণ ডায়েরি করে। উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুভাষ চন্দ্রকে ঘটনার বিস্তারিত জানানো হয়েছে।

স্বাআলো/এস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম