প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: রিটেনে পাস প্রক্সি প্রার্থীর পরীক্ষায়, ভাইবা দিতে এসে ধরা

পঞ্চগড়ে প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় এক পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। স্বপন সেন (২৯) নামে ওই পরীক্ষার্থীকে মৌখিক পরীক্ষার সময় আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) বিকেলে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। আটক স্বপন সেন পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের লাঙ্গলগাঁও এলাকার বাসিন্দা।

পুলিশ ও নিয়োগ বোর্ড সূত্রে জানা যায়, এক ব্যক্তিকে ভাড়া করে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় স্বপন। কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা দিতে গিয়ে হাতের লেখা মিল না হওয়ায় ধরা পড়েন তিনি। পরে জিজ্ঞাসাবাদে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করার বিষয়টি স্বীকার করেন তিনি। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এর আগে আরো ৪ পরীক্ষার্থীকে অসদুপায় অবলম্বনের জন্য তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন।

পঞ্চগড় সদর থানার উপ-পরিদর্শক ভবেশ (এসআই) চন্দ্র পাল বলেন, নিয়োগ বোর্ড লিখিত পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের জন্য ওই পরীক্ষার্থীকে আমাদের কাছে সোপর্দ করেছে। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায় বলেন, মৌখিক পরীক্ষায় ওই পরীক্ষার্থীর হাতের লেখার অমিল পাওয়া যায়। এক পর্যায়ে সে সব দোষ স্বীকার করে। সে জানায় যে লিখিত পরীক্ষার দিন সে বাড়িতেই ছিলো। তার বদলে পরীক্ষা দিয়েছে আরেকজন। চাকরি পেতে ১৬ লাখ টাকার চুক্তি করেছিলেন তিনি। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

স্বাআলো/এসএ

.