এশিয়া কাপ-বিশ্বকাপে বাংলাদেশের নতুন অধিনায়ক সাকিব

বিসিবির অনুমতি না নিয়ে বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরও শাস্তি থেকে রেহাই পেয়ে গেলেন সাকিব আল হাসান। বরং তাকে দেয়া হলো টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের নেতৃত্বভার। আসন্ন এশিয়া কাপে সাকিবের নেতৃত্বেই খেলবে বাংলাদেশ দল। আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত তাকে নেতৃত্বভার দেয়া হয়েছে।

আজ শনিবার (১৩ আগস্ট) বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের বাসায় দীর্ঘ সভার পর এই সিদ্ধান্ত হয়।

জুয়াড়ি প্রস্তাব গোপন করায় ২০১৯ সালে এক বছর নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাকিব। তারপরও তিনি শিক্ষা নেননি। এবার বিসিবিকে না জানিয়ে ‘বেটউইনার নিউজ’ নামের একটি জুয়া সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেন। ফেসবুকে পোস্টও করেন। এরপর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, সাকিবকে জুয়া অথবা ক্রিকেট- যে কোনো একটা বেছে নিতে হবে। এর কিছু সময় পর সাকিব ই-মেইলের মাধ্যমে বিসিবিকে জানান, তিনি চুক্তি বাতিল করেছেন।

বিসিবিকে না জানিয়ে এই চুক্তি করে সাকিব বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিভঙ্গ করেছেন। দুই দিন আগে এমন কথাই বলেছিলেন বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তিনি বলেছিলেন, ‘এটি অবশ্যই চুক্তিভঙ্গ। ওর অনুমতি না নেয়াটাই প্রথম ভুল। প্লেয়ার্স কন্ট্রাক্টে পরিষ্কার লেখা আছে চুক্তির আগে অনুমতি নিতে হবে। এটি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। এটি হতে পারে না। ওকে (সাকিব) স্মরণ করিয়ে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে এ রকম হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাআলো/এস

.

Author
স্পোর্টস ডেস্ক