বিশ্ববাজারে সোনার দামে বড় লাফ

গেলো সপ্তাহে বিশ্বাবাজারে সোনার দামে বড় উত্থান হয়েছে। এক সপ্তাহেই প্রতি আউন্স সোনার দাম প্রায় একশ ডলার বেড়ে গেছে। এতে তিন মাসের মধ্যে সোনার দাম সর্বোচ্চ পর্যায়ে উঠে এসেছে। বিশ্ববাজারে এমন দাম বাড়ায় দেশের বাজারে যেকোনো মুহুর্তে এ ধাতুটির দাম বাড়ানো হতে পারে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

দেশের বাজারে সোনার দাম নির্ধারণ করার দায়িত্ব পালন করে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। আর বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি বৈঠক করে সোনার দাম বাড়ানো বা কমানোর ঘোষণা দেয়।

বাজুস সূত্রে জানা গেছে, দেশের বাজারে সোনার দাম পুনর্নির্ধারণের পর এরই মধ্যে বিশ্বাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম একশ ডলারের ওপরে বেড়ে গেছে। বিশ্ববাজারে সোনার দামে এমন বড় উত্থান হওয়ায় দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে শনিবার (১২ নভেম্বর) বৈঠক করবে বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি। যেকোনো মুহূর্তে দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে।

বিশ্ববাজারে সোনার লেনদেনের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহের শুরুতে প্রতি আউন্স সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৬৮০ দশমিক ৫৪ ডলার। সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসের লেনদেনে একপর্যায়ে সোনার দাম কমে প্রতি আউন্স ১ হাজার ৬৬৬ ডলারে নেমে যায়। তবে এরপর ধারাবাহিকভাবে বাড়তে থাকে সোনার দাম।

দফায় দফায় দাম বেড়ে সপ্তাহ শেষে প্রতি আউন্স সোনার দাম ১ হাজার ৭৭১ দশমিক শূন্য ৮ ডলারে উঠে এসেছে। এতে সপ্তাহের ব্যবধানে সোনার দাম বেড়েছে ৫ দশমিক ৪০ শতাংশ বা ৯০ দশমিক ৫৪ ডলার।

এর মধ্যে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসেই দাম বেড়েছে ১৬ দশমিক ৩৩ ডলার। টানা দুই সপ্তাহ বিশ্বাবাজারে সোনার দাম বাড়লো। আগের সপ্তাহে প্রতি আউন্স সোনার দাম বাড়ে ৩৬ ডলার। অর্থাৎ দুই সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি আউন্স সোনার দাম বেড়েছে ১২৬ ডলার।

সোনার এমন দাম বাড়ায় প্রায় তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে উঠে এসেছে দামি এ ধাতুটি। এর আগে গত ১৬ আগস্ট প্রতি আউন্স সোনার দাম ১ হাজার ৭৭০ ডলারের ওপরে ছিলো। এরপর গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের আগে সোনার দাম ১ হাজার ৭৭০ ডলার স্পর্শ করতে পারেনি।

বাজুসের এক সদস্য বলেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে সম্প্রতি মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ সুদের হার বাড়িয়েছে। এর একটি প্রভাব সোনার দামে পড়েছে। যে কারণে বিশ্ববাজারে সোনার দাম বাড়ছে। বিশ্বাজাবাজারে যে হারে সোনার দাম বেড়েছে, তাতে বাংলাদেশে অবশ্যই সোনার দাম বাড়াতে হবে। যেকোনো মুহূর্তে সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা আসবে। এমনকি আজই সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সহ-সভাপতি এনামুল হক ভূইয়া লিটন বলেন, গত এক সপ্তাহে বিশ্বাবাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম প্রায় একশ ডলার বেড়েছে। আমরা আজ বৈঠকে বসবো। বৈঠকে দাম পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এদিকে বিশ্ববাজারে সোনার এ দাম বাড়ার আগে প্রায় এক মাস ধরে দরপতন হয়। বিশ্ববাজারে সোনার টানা দরপতন হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ২৫ অক্টোবর থেকে দেশের বাজারেও সোনার দাম কমানো হয়। মান অনুযায়ী প্রতি আউন্স সোনার দাম ৮১৭ টাকা থেকে ১ হাজার ১৬৬ টাকা পর্যন্ত কমায় বাজুস।

বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৮০ হাজার ১৩২ টাকা করা হয়।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ১০৮ টাকা কমিয়ে ৭৬ হাজার ৫১৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ৯৩৩ টাকা কমিয়ে ৬৫ হাজার ৫৫২ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি সোনার দাম ৮১৭ টাকা কমিয়ে ৫৪ হাজার ৩৫৪ টাকা করা হয়। বর্তমানে এ দামেই দেশের বাজারে সোনা বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, সোনার পাশাপাশি গত সপ্তাহে বিশ্ববাজারে রুপা ও প্লাটিনামের দামেও বড় উত্থান হয়েছে। গত এক সপ্তাহে রুপার দাম ৪ দশমিক ১৪ শতাংশ বেড়ে প্রতি আউন্স ২১ দশমিক ৬৯ ডলারে উঠে এসেছে। আর প্লাটিনামের দাম ৭ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ২৮ দশমিক ৫৮ ডলারে দাঁড়িয়েছে।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
ঢাকা অফিস