পাবজি খেলার সূত্রে প্রেম, বাংলাদেশে এসে ভারতীয় যুবক আটক

অনলাইনে পাবজি খেলার সূত্রে কিশোরীর প্রেমের টানে রতিকান্ত সামন্ত নামে ভারতীয় এক যুবক পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এসে পর্নোগ্রাফি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রবিবার রাতে ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মঠবাড়িয়া থানায় পর্নোগ্রাফি ও নারী পাচার আইনে রতিকান্ত এবং অজ্ঞাত তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

গ্রেফতারকৃত রতিকান্ত সামন্ত (২৩) ভারতের পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সুতাহাটা থানার বড়দা গ্রামের লক্ষ্মীকান্ত সামন্তের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, পৌর শহরের এসএসসি পরীক্ষার্থী কিশোরীর সঙ্গে দীর্ঘ এক বছর আগে মোবাইলে পাবজি খেলার সূত্র ধরে রতিকান্ত সামন্তের পরিচয় হয়। এর পর দুজনের মধ্যে বিভিন্ন ছবি আদান-প্রদান হয়। সম্প্রতি ভারতীয় যুবক রতিকান্ত মঠবাড়িয়ায় এসে ওই কিশোরীকে ভারতে নেয়ার চেষ্টা করেন।

যুবকের গতিবিধি সন্দেহ হলে কিশোরী ভারত যেতে অস্বীকৃতি জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কিশোরীর ছবি বিভিন্নভাবে এডিট করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়ে দেয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতার রতিকান্তকে সোমবার মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালতের বিচারিক হাকিম কামরুল আজাদ তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

স্বাআলো/এসএস

.