আর্জেন্টিনার ২০০ হাতের জবাবে ব্রাজিলের ৫০০ হাতের পতাকা

প্রতিবছর ফুটবল বিশ্বকাপ এলে চির প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা সমর্থকদের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে যায়। শীতেও খেলা নিয়ে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে কুমিল্লার ফুটবল ভক্তদের মাঝে। একে অপরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে প্রিয় দলের দীর্ঘ পতাকা তৈরি করছেন তারা।

সম্প্রতি বরুড়া উপজেলায় আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের সমর্থকরা ২০০ হাত লম্বা একটি পতাকা তৈরি করে হৈচৈ ফেলে দেয়। তাদের জবাব দিতে এবার ৫০০ হাতের দীর্ঘ পতাকা তৈরি করেছে ব্রাজিল সমর্থকরা।

বরুড়া পৌরসভার কসামি এলাকার একদল তরুণ ‘কসামি ব্রাজিল ফ্যানস’ উদ্যোগে রবিবার বিকালে ওই পতাকাটি তৈরি করে টানালে সাড়া পড়ে যায়। সোমবার সকাল থেকে বিশাল পতাকাটি দেখতে ভিড় করেন আশপাশের এলাকার শতশত মানুষ।

পতাকাটি দেখতে আসা ওই এলাকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গত সপ্তাহে আর্জেন্টিনার সমর্থকরা ২০০ হাত লম্বা পতাকা টানিয়ে হৈ-চৈ ফেলে। এরপর কসামি এলাকার গাজী দেলোয়ার হোসেন, জামাল হোসেন, মোহাম্মদ জহির, হেলাল উদ্দিস ও জুবায়ের হোসেনসহ ব্রাজিল ভক্ত-সমর্থকেরা ৫০০ হাত লম্বা এই পতাকাটি বানিয়েছে।

তানভীর আলম নামের আরেকজন মজার করে বলেন, এখন শুনেছি, আর্জেন্টিনার সমর্থকরাও ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করছে।

পতাকাটির কারিগরের একজন জামাল হোসেন বলেন, আমাদের এলাকায় আর্জেন্টিনার সমর্থকরা ২০০ হাত লম্বা পতাকা টাঙিয়েছিলো। সেটাকে টেক্কা দিয়ে আমরা ব্রাজিলের সমর্থকরা ৫০০ হাত লম্বা পতাকা প্রদর্শন করলাম। এতে মনে শান্তি অনুভব করছি। বিশ্ব ফুটবলে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। খেলার মাঠেও ব্রাজিল চমক দেখায়। ভাল লাগা থেকে আমাদের এ ছোট্ট আয়োজন।

এ প্রসঙ্গে রুবেল মিয়া নামে আর্জেন্টিনার এক সমর্থক বলেন, আমাদের দেখেই তারা বড় পতাকা বানিয়েছে। এবার আমরাও ভিন্ন কিছু করতে চাই। তবে আমাদের এই প্রতিযোগিতা শুধুই মনের আনন্দের জন্য। আমরা সবাই মিলেমিশে এবারের বিশ্বকাপ উপভোগ করবো।

বরুড়া পৌরসভার মেয়র বক্তার হোসেন বলেন, দুদলের সর্থকেরাই এলাকায় পতাকা লাগিয়েছে। তবে পতাকা ঘিরে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে আমি দুটিই নামিয়ে ফেলবো। বিশ্বকাপ ঘিরে বিশৃঙ্খলা তৈরির কোনো সুযোগ নেই।

এদিকে বিশ্বকাপ উত্তেজনা ঘিরে পুলিশ সতর্ক রয়েছে জানিয়ে বরুড়া থানার ওসি ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন, মানুষ তার পছন্দের দলকে সমর্থন করবে, সমর্থকরা ব্যতিক্রম কিছু করার চেষ্টা করবেন, এতে কোনো দোষ নেই। তবে এসব করতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
চট্টগ্রাম ব্যুরো