প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে তৎপর সভাপতি মিলন ও এমপি নাবিল

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন বলেছেন, দেশব্যাপী সাধারণ মানুষের কথা শোনার জন্য শেখ হাসিনা আগামী ২৪ নভেম্বর থেকে জনসভা করবেন। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে তিনি সাধারণ মানুষের সুখ দুঃখের কথা শোনবেন। কারণ তার দর্শনের মূল লক্ষ্য হলো সাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করা। উন্নয়নের ছোয়া শহর থেকে গ্রামে নেয়া। গ্রামকে শহরে পরিণত করা। সঠিক সেবা জনগণের কাছে পৌছে দেয়া। সব শ্রেণি পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে সমানতালে এগিয়ে যাওয়া। সেই লক্ষ্যে তিনি দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সাধারণ মানুষ শেখ হাসিনা ছাড়া বর্তমানে কাউকে বিশ্বাস করে না। কেউ হাওয়া ভবনের নামে ছায়া সরকারের কাছে জিম্মি হতে চায় না। সার ও বিদ্যুতের জন্য জীবন দিতে চায় না। দেশের প্রয়োজনে সাধারণ মানুষ আবারো শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে চায়। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশবাসী আওয়ামী লীগের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ। ষড়যন্ত্রকারীরা কেউ টিকে থাকতে পারবে না।

আগামী ২৪ নভেম্বর যশোর স্টেডিয়ামে শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে প্রস্তুতি ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এ কথা বলেন।

প্রস্তুতি ও মতবিনিময় সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, দেশবাসী আর বিএনপির মিষ্টি কথায় কান দেবে না। হাওয়া ভবন ও জঙ্গি হামলার কথার কেউ এখনো ভুলে যায়নি। নতুন করে দেশবাসী আর অত্যাচারিত ও নির্যাতনের শিকার হতে চায় না। সবাই সুখে-শান্তিতে থাকতে চায়। নিরাপদ জীবনযাপন করতে চায়। বাংলাকে কেউ আফগান দেখতে চায় না। বিএনপি-জামায়তের কড়া জবাব দেয়ার জন্য দেশবাসী প্রস্তুত। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ। বেশি বাড়াবাড়ি করলে জনগণ বিএনপি-জামায়াতকে দেশ থেকে পালানোর সুযোগ দেবে না। ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করবে।

এ সময় নেতৃবৃন্দ লেবুতলা, ইছালী, নওয়াপপাড়া, উপশহর ও ফতেপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান মিন্টু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনির, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান-জেলা যুবলীগ নেতা ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক ফারুক আহমেদ কচি, সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুখেন মজুমদার, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক অধ্যক্ষ নূরে আলম সিদ্দিকী মিলন, লেবুতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলীমুজ্জামান মিলন, ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সোহবার হোসেন, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওসমান গণি, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সাজেদুল হক রিপন, ইছালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, লেবুতলা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক শরিফুল ইসলাম ও জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি কায়েস আহমেদ রিমু।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মৃদুলের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, উপ-প্রচার সম্পাদক লুৎফুল কবির বিজু, সদস্য কামাল হোসেন, মোয়াজ্জেম হোসেন, জেলা জাতীয় শ্রমিকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য জবেদ আলী, জেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শেখ রফিকুল ইসলাম রফিক প্রমুখ।

এরপর বিকালে পুলেরহাট বাজারে দেয়াড়া, আরবপুর ও চাঁচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন নেতৃবৃন্দ। চাঁচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আজহার আলী মোল্লার সভাপতিত্বে ওই মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ খায়রুজ্জামান রয়েল, জেলা যুবলীগের সদস্য এস এম রবি সিদ্দিকী, দেয়াড়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক জাফর ইকবাল, আরবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মীর ফিরোজ ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সাঈদ সরদার।

স্বাআলো/এস

.

Author
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর