যশোরে দুই কোটি ১৭ লাখ টাকার সোনার বার ফেলে পালিয়ে গেলো পাচারকারী

যশোরের শার্শা সীমান্ত থেকে ২০টি সোনার বার উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। উদ্ধারকৃত সোনার দাম দুই কোটি ১৭ লাখ ৮৫ হাজার ৫০০ টাকা।

এ সময় পাচারকারী সোনার ব্যাগ ফেলে পালিয়ে যায়।

সোমবার (২১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শার্শা উপজেলার নারকেলবাড়িয়া গ্রামের একটি সরিষা ক্ষেতের মধ্যে থেকে সোনার এই চালান উদ্ধার করা হয়।

যশোর ৪৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল শাহেদ মিনহাজ ছিদ্দিকী সোমবার দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, সোমবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শালকোনা বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে শার্শা উপজেলার নারকেলবাড়িয়া সীমান্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ওই গ্রামের কালু মিয়ার আম বাগানের মধ্য দিয়ে একজন ব্যক্তি গোলাপী রঙের ব্যাগ হাতে ভারত সীমান্তের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে চ্যালেঞ্জ করলে হাতে থাকা ব্যাগ সরিষা ক্ষেতের মধ্যে ফেলে ভারতের দিকে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে উক্ত স্থানে কর্মরত কৃষকদের সহায়তায় সরিষা ক্ষেত তল্লাশি করে ব্যাগের মধ্য হতে ২০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। পালিয়ে যাওয়া পাচারকারী শার্শার শালকোনা গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে তারিকুল ইসলাম তারেককে (৪০) আটকের জন্য বিজিবির একটি স্পেশাল টিম অভিযানে রয়েছে।

উদ্ধারকৃত সোনা ও পলাতক আসামির বিরুদ্ধে শার্শা থানায় মামলা দায়ের এবং সোনার বারগুলো ট্রেজারিতে জমা করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর