আক্রমণভাগে নেইমার-রিচার্লিসন, দুই পাশে রাফিনিয়া-ভিনি, গোলপোস্টে অ্যালিসন

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল তারা, বিশ্বকাপ শিরোপার অন্যতম দাবিদারও। ব্রাজিল দলকে নিয়ে কৌতূহলও তাই বেশিই। কিন্তু উৎসুক দর্শক-সমর্থক দূরে থাক, সংবাদমাধ্যমও তিতে-বাহিনীর অনুশীলনের নাগাল পাচ্ছে না। রুটিন কিছু ছবি তোলা ও ভিডিও ফুটেজ ধারণ বাদ দিলে ব্রাজিলের অনুশীলনে ‘প্রবেশ-নিষেধ’ ব্যানার।

তিতের এই গোপনীয়তা রক্ষার কারণ তো সহজেই অনুমেয়। প্রথম ম্যাচে কোন একাদশ খেলানো হতে পারে, কী কৌশল নিয়ে কাজ চলছে, সেটি আড়ালে রাখার চেষ্টা। তবু পুরোটা কি গোপন রাখা যাচ্ছে!

ব্রাজিলের টেলিভিশন চ্যানেল গ্লোবো নেইমারদের প্রথম ম্যাচের একাদশ ‘ফাঁস’ করে দিয়েছে। তাদের প্রতিবেদন বলছে, আগামীকাল সার্বিয়ার বিপক্ষে প্রচলিত ধারার বাইরের একাদশ নামাবেন তিতে। যে একাদশে মূল মনোযোগ দেয়া হয়েছে আক্রমণভাগে। এ জন্য একজন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার কম খেলানোরও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিতে।

আক্রমণভাগে নেইমার ও রিচার্লিসনের দুই পাশে খেলবেন রাফিনিয়া ও ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। মিডফিল্ডার হিসেবে থাকবেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফ্রেদ এবং ওয়েস্ট হামের লুকাস পাকেতা। তবে পাকেতা কিছুটা সামনে থাকবেন। রক্ষণে থিয়াগো সিলভা ও মার্কিনিওস থাকবেন মাঝখানে, দুই পাশে দানিলো এবং অ্যালেক্স সান্দ্রো। আর গোলপোস্টের নিচে অ্যালিসন।

আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। কাল সৌদি আরবের কাছে হারের পর শুরুর একাদশ এভাবে সাজিয়ে সোম ও মঙ্গলবার ‘ক্লোজড-ডোরে’ অনুশীলন করেছে ব্রাজিল। আক্রমণভাগে অতি মনোযোগী হতে গিয়ে মিডফিল্ডে খেলোয়াড় কমিয়ে ফেলার এই একাদশকে ‘নজিরবিহীন’ বলে উল্লেখ করেছে গ্লোবো।

এখন দেখার বিষয়, ‘ফাঁস’ হওয়া দলটিই কি প্রথম ম্যাচের শুরুর একাদশে থাকছে কি না।

ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয়ের অভিযানে আসা ব্রাজিল সার্বিয়ার বিপক্ষে খেলবে আগামীকাল বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। ‘জি’ গ্রুপে নেইমারদের অপর দুই প্রতিপক্ষ ক্যামেরুন এবং সুইজারল্যান্ড।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
স্পোর্টস ডেস্ক