চুয়াডাঙ্গায় ট্রাক্টরের চাকা বিস্ফোরণে কিশোরের মৃত্যু

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় ট্রাক্টরের চাকা বিস্ফোরণে আব্দুর রহিম (১৪) নামের এক কিশোর মারা গেছে। আজ বুধবার (২৩ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সে উপজেলার হাউলি ইউনিয়নের পুরাতন বাস্তপুর গ্রামের ফকির উদ্দিনের ছেলে।

হাউলি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন জানান, নিহত আব্দুর রহিম বাস্তপুর গ্রামের একটি সাইকেল-ভ্যান মেরামতের দোকানে কাজ করতো।

বুধবার দুপুরে সে একটি পাওয়ার টিলারের (ছোট ট্রাক্টর) সামনের চাকায় হাওয়া দিচ্ছিলো। এ সময় পাওয়ার টিলারের চাকা বিস্ফোরণে সে ছিটকে পড়ে মাথায় আঘাত পায়। মাথায় রক্তাক্ত জখম অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. তাসনিম আফরিন জ্যোতি বলেন, ওই কিশোরের মাথায় আঘাত ছিলো। রক্তক্ষরণ হয়েছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। হাসপাতালে আসার আগেই মারা গেছে সে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, আইনগত কাজের প্রয়োজনে আমি চুয়াডাঙ্গা আদালতে এসেছি, তবে ঘটনা সম্পর্কে শুনেছি। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

স্বাআলো/এস

.

Author
মফিজুর রহমান জোয়ার্দ্দার, চুয়াডাঙ্গা
জেলা প্রতিনিধি