প্রেমিকের বিয়েতে দুই সন্তান নিয়ে হাজির প্রেমিকা!

সব আয়োজন শেষ। বিয়ের মণ্ডপে বসেছেন বর-কনে। ঠিকঠাকই চলছিলো সব, ছিলেন অতিথিরাও। কিন্তু হঠাৎ সেখানে এক নারীর উপস্থিতি পাল্টে যায় পরিস্থিতি। উপস্থিত সবার সামনেই নিজেকে বরের প্রেমিকা বলে দাবি করেন ওই নারী। আর এ ঘটনার পর বিয়ে ভেঙে দেন কনে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের মোহালিতে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, নিজেকে বরের প্রেমিকা দাবি করা ওই নারীর দুই সন্তান রয়েছে। তার অভিযোগ, মেয়েটির সঙ্গে যার বিয়ে হচ্ছে, সেই ছেলে তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দিয়েও কথা রাখেননি। আট বছর ধরে তারা একসঙ্গে (লিভ-ইন) ছিলেন।

বিয়ের মণ্ডপে সবার সামনে ওই নারী বলেন, এই ছেলেটিকে বিয়ে করব বলে এরইমধ্যে আদালতে আমার স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন জানিয়েছি। আমার ছেলেমেয়ের সঙ্গেও ওর ভালো সম্পর্ক। সে যে মনে মনে অন্য কাউকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করছে, সে বিষয়ে আমি কিছুই জানতাম না।

তবে বর পাল্টা অভিযোগ করে বলেন, ওই নারীর যে বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি, সেই বিষয়টি আমি জানতাম না। সে আমাকে বলেনি যে এখনো বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি। আমার কাছে মিথ্যা বলেছে। তাই আমি অন্য একজনকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এদিকে বিয়ে ভেঙে দেয়ার পর সব আয়োজনের জন্য যা খরচ হয়েছে, তা বরের কাছে দাবি করেছে ওই কনের পরিবার। এ নিয়ে বরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও করা হয়েছে।

মোহালির পুলিশ বলছে, অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: আনন্দবাজার

স্বাআলো/এসএস

.

Author
আন্তর্জাতিক ডেস্ক