ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলন: কাল থেকে সভাপতি-সম্পাদক পদে আবেদন শুরু

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে আগামীকাল বুধবার (৩০ নভেম্বর) থেকে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আবেদনপত্র জমা নেয়া শুরু হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সম্মেলনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার রেজাউল করিম সুমন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে আরো দুই নির্বাচন কমিশনারেরও স্বাক্ষর রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে আগ্রহী পদ-প্রত্যাশীদের বুধবার, ৩০ নভেম্বর থেকে আগামী ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছাত্রলীগের অনলাইন কমিউনিটি ওয়েবসাইট https://bsl.community থেকে ফরম সংগ্রহ করে প্রয়োজনীয় তথ্যাদি ও কাগজপত্র সংযুক্ত করে নির্বাচন কমিশন বরাবর জমা দেয়ার জন্য আহবান জানানো হলো।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ২৩, বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে প্রতিদিন ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আবেদন ফরম জমা দেয়া যাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এর আগে, ২০১৮ সালের মে মাসে ছাত্রলীগের ২৯তম কেন্দ্রীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্য দিয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক হন গোলাম রাব্বানী। তবে মাত্র এক বছরের মাথায় অনিয়ম ও চাঁদাবাজির অভিযোগে তাদের নেতৃত্ব থেকে অপসারণ করা হয়। এরপর গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, এক নম্বর সহ-সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়। তিন মাস পর ২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জয় ও লেখককে ভারমুক্ত করে পূর্ণাঙ্গ দায়িত্ব দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাআলো/এস

.

Author
ঢাকা অফিস