কালীগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ: নিহত ১, আহত ১০

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে বেদেপল্লিতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ১০ জন। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) রাতে উপজেলার কাশিপুর বেদেপল্লিতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আরিফ উপজেলার কাশিপুর গ্রামের ইব্রাহিম লস্কারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, কাশিপুর বেদেপল্লিতে মনিরুল ইসলাম ও রাসেল হোসেন দুটি দলের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন। মঙ্গলবাল সন্ধ্যায় জুয়া খেলা ও নারী নির্যাতনকে কেন্দ্র করে মনিরুল ইসলাম ও রাসেলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় ভাঙচুর করা হয় বেশ কয়েকটি বাড়িঘর। খবর পেয়ে রাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে। সে সময় আবারো উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়।

পরে আহতদের উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে রাসেল হোসেনের সমর্থক আরিফের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। আহতদের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহিম মোল্লা বলেন, কাশিপুর বেদেপল্লিতে মনিরুল ইসলাম ও রাসেল হোসেনের দলের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। রাতে জুয়া খেলা ও নারী নির্যাতনকে কেন্দ্র করে তাদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়। আহতদের কিছু যশোর হাসপাতালে নেয়া হয়েছিলো। এ সময় আরিফ গুরুতর অসুস্থ হলে যশোর থেকে তাকে ঢাকাতে নেয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় কোনো মামলা হয়নি।

স্বাআলো/এস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ