কেশবপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানকে প্রাণনাশের হুমকি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

কেশবপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলামকে প্রাণনাশের হুমকি ও মুক্তিযোদ্ধাদের মা-বোনদের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যকারী আলমগীর সিদ্দিক টিটুসহ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কেশবপুরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান প্রজন্মের আয়োজনে স্থানীয় ত্রিমোহিনী মোড়ে বিশাল এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

অনুষ্টানে আগামী সাতদিনের মধ্যে আসামিদের গ্রেফতার না করা হলে বৃহত্তর আনন্দোলের কর্মসূচি দেয়া হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

কেশবপুরে হুমকি ও অপমানের স্বীকার উপজেলা চেয়ারম্যান

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, উপজেলা চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম, এ্যাভোকেট মিলন মিত্র, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাগরদাঁড়ি ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মোস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের নিচে আলমগীর সিদ্দীক টিটুসহ ১৫/২০ জন উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলামকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান ও মুক্তিযোদ্ধাদের মা বোনদেন নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী রফিকুল ইসলাম কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে আলমগীর সিদ্দিকী বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান পাল্টা ওয়ার্ড কমিটি গঠনের নামে প্রকাশ্য জনসভায় দাড়িয়ে তার নামে আজে বাজে কথা বলেছেন সে বিষয়ে তিনি শুনতে গিয়েছিলেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান জুতা খুলে তার দিকে তেড়ে আসলে তিনিও কথার জবাব দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্য ও অন্যান্য অকর্মের অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন প্রমাণ দিতে পারলে তিনি শাস্তি মাথা পেতে নেবেন।

স্বাআলো/এস

.

Author
আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ, কেশবপুর (যশোর)
উপজেলা প্রতিনিধি