ঘন কুয়াশায় বীজতলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষকরা

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে ঘন কুয়াশায় বোরো মৌসুমে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ধানের বীজতলা। গত এক সপ্তাহ মৃদু শৈতপ্রবাহের ফলে আবাদ ব্যাহত হওয়ায় লোকসানের দুশ্চিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন কৃষকরা।

এছাড়া তীব্র শীতের কারণে শ্রমিক সংকটেও ব্যাহত হচ্ছে বোরোর আবাদ। দিনের পর দিন পর্যাপ্ত রোদ না পাওয়া ও প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় আসন্ন ইরি-বোরো মৌসুমের বীজতলা কোল্ডডিজিজে আক্রান্ত হচ্ছে। এতে অনেক কৃষকের বীজতলা হলদে ফ্যাকাসে হয়ে উঠছে। ফলে চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে চারা নিয়ে উপজেলার কৃষকদের মাঝে দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, এ বছর চলতি বোরো মৌসুমে ১৬ হাজার ৪০৫ হেক্টর জমিতে ইরি-বোরো চাষের লক্ষ‍্যমাত্রা নির্ধারন করা হলেও ঘন কুয়াশায় লক্ষ্যমাত্রা পূরণে তা প্রস্তুত করা সম্ভব হচ্ছে না।

তাছাড়া মৌসুমের শুরুতেই একদিকে যেমন ধানের বীজ, সার, ডিজেলের দাম বেড়ে গেছে। অন্যদিকে ঘন কুয়াশায় ধানের বীজতলা নষ্ট হওয়ায় মাথায় হাত পড়েছে কৃষকের।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যে জানা যায়, উপজেলায় ১০টি ইউনিয়নের চলতি মৌসুমে ১৬ হাজার ৪০৫ হেক্টর জমিতে ইরিবোরো চাষের লক্ষ‍্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। এজন্য ৮২০ হেক্টর জমিতে বোরো বীজতলা তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। অর্জিত হয়েছে মোট ৮৯২ হেক্টর বোরো বীজতলা।

স্বাআলো/এস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম