যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরলো দুই যুবকের প্রাণ

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই যুবক নিহত হয়েছেন।

রবিবার (১৫ জানুয়ারী) সকালে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের পাঁচবাড়িয়া বেলতলায় করিম হোসেন (২৮) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হয়েছেন।

নিহত করিম হোসেন সদর উপজেলার খাজুরা গ্রামের শাজাহান হোসেনের ছেলে।

এছাড়া মণিরামপুর উপজেলার গরীবপুর চাঁন গ্রামের সড়কে সজীব হোসেন (১৯) নামে এক কলেজছাত্র মোটরসাইকেলের সাথে ইজিবাইকের ধাক্কায় নিহত হোন। তিনি মণিরামপুর কলেজের একাদশ শ্রেণির প্রথম বর্ষে ভর্তি হয়েছেন।

নিহত করিমের চাচা আব্দুল লতিফ জানান, রবিবার সকালে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে সাগর ও করিম ট্রেনিং করার জন্য যশোর আসছিলো। সাগর মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলো করিম পিছনে বসেছিলো। যশোর-মাগুরা সড়কের পাঁচবাড়িয়া বেলতলায় পৌঁছালে যশোরগামী সাতক্ষীরা এক্সপ্রেসের একটি বাস পিছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ সময় করিম মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে বাসের চাকা তার মাথার পিছনে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে সাগর হোসেন রাস্তার পাশে পড়ে যাওয়ায় সুস্থ আছে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে করিম হোসেনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আহমেদ তারেক শামস মৃত ঘোষণা করেন।

বারোবাজার হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনজুরুল আলম নিহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাসটিকে আটক করা সম্ভব হয়নি আইনগত অবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

অপরদিকে, নিহত সজীব হোসেনের চাচাতো ভাই নূর মোহাম্মদ জানান, রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে নিজের গ্রামের ভিতর ঘুরছিলো এসময় মোটরসাইকেল পিছলে ইজিবাইকের সাথে ধাক্কা খায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আহমেদ তারেক শামস দুপুর ৩টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

মণিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, সজীব হোসেনের নিহতের বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

স্বাআলো/এসএ

.

Author
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর