সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের সহকর্মীর হাতে ম্যানেজার খুন, আটক ২

পটুয়াখালীতে সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের সহকর্মীর হামলায় ম্যানেজার আঃ রাজ্জাকের মৃত্যু। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (১৪ জানুয়ারী) সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের ম্যানেজার আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার (৬৩) লঞ্চঘাট সংলগ্ন মদিনা জামে মসজিদে নামাজ আদায় শেষে ঘাটে নোঙ্গর করা সুন্দরবন-১৪ লঞ্চে যায়। সেখানে একই লঞ্চের কেরানী মশিউরের সাথে কেবিন ভাড়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আঃ রাজ্জাকের সাথে তর্কবিতর্ক চলাকালে অসুস্থ হয়ে পরে। এ সময় স্থানীয়রা আঃ রাজ্জাককে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ কন্যা ও এক পুত্র সন্তানসহ বহু শুভাকাঙ্গী রেখে গেছেন। তার অকাল মৃত্যুতে পটুয়াখালীতে শোকের ছায়া রিরাজ করছে। লাশ পোর্ট মডেমের জন্য মর্গে রয়েছে।

পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান মনির জানান, লঞ্চের স্টাফদের সাথে তাদের অভ্যন্তরিন বিষয় তর্কবিতর্ক হলে লঞ্চের ম্যানেজার অসুস্থ হলে ঘাটের লোকজন হাসপাতালে নেয়ার পরে তার মৃত্যু হয়। জিজ্ঞাসাবাদে ঐ লঞ্চের কেরানী মশিউর ও সুপারভাইজার ইউনুচকে থানায় আনা হয়েছে।

পুলিশ ফাঁড়ির টিএসআই জানান, ঘটনার সময় ছিলাম না, শুনেছি সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের স্টাফরা নিজেরা নিজেরা হাতাহাতি করেছে। এতে রাজ্জাক অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নিলে তার মৃত্যু ঘটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক একজন জানান, ম্যানেজার রাজ্জাক ও কেরানী মশিউরের সাথে তর্কবিতর্কের এক পর্যায় মশিউর এলোপাথারি ঘুষি মারলে রাজ্জাক অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা পর সুন্দরবন-১৪ লঞ্চটি যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে গেছে বলে স্থানীয়রা জানান।

এদিকে সুন্দরবন লঞ্চ সুপারভাইজার আ. রাজ্জাক’র হত্যার প্রতিবাদে ১৫ জানুয়ারি রবিবার বিকেল ৪টায় ঘাট শ্রমিক লীগ পটুয়াখালী লঞ্চ টার্মিনাল ঘাট চত্বরে এক মানববন্ধনের ডাক দিয়েছে।

স্বাআলো/এসএস

.

Author
জেলা প্রতিনিধি, পটুয়াখালী