বিএনপিকে খুনিদের দল বলে আখ্যা দিলেন ধানের শীষে জেতা সুলতান মনসুর

যারা বাংলাদেশকে মেরামত করতে চায় তারা ’৭৫ সালের মতো ঘটনা ঘটিয়ে মেরামত করতে চায়। শুধু তাই নয়, বিএনপিকে ‘খুনিদের’ দল বলেও আখ্যা দেন ধানের শীষে জেতা সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে দেয়া রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বলেন, বাংলাদেশকে মেরামত করতে হবে। কাদের কাছ থেকে শুনছি? পঁচাত্তরের খুনিদের কাছ থেকে শুনছি। মেরামত শব্দটি সাধারণত পরিবারের সঙ্গে ঘর মেরামত বোঝায়। তারা কি সেই মেরামত করতে চায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মতো ঘটনা ঘটিয়ে? তারা কি সেই মেরামত করতে চায় খুনি জিয়া যেমনিভাবে পাকিস্তানের দালাল জাতিসংঘে মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে কথা বলেছিল সেরকম পরিবর্তন করে? জিয়ার দুঃশাসনে যে কারফিউর গণতন্ত্র, তারা কি সেই স্বৈরতন্ত্র করতে চায়? তাদের কথা শুনলে মনে হয় ওই দিকেই যাচ্ছে।

মনসুর বলেন, এক দল, দুই দল, ৫৪ দল বিভিন্ন দল করছে, আজকের সংসদে দাঁড়িয়ে এ কথা বলতে পারি- পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে বৈঠক করে যারা বাংলাদেশের রাজনীতির পরিবর্তন চান, সেই পাকিস্তানি ধারার রাজনীতি আর এ দেশে আসার সুযোগ নাই। যারা এই ধারার রাজনীতি করেন তাদের শুধু বলব- জীবনে কোনোদিন বিএনপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ কোনো আন্দোলনে কোনো বিজয় তারা ছিনিয়ে আনতে পারেনি। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তারা খুনি জিয়ার মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেছিলো। কিন্তু আন্দোলন সংগ্রাম করে মানুষের মন নিয়ে মানুষের মাধ্যমে এদেশে আন্দোলনের সফলতা তারা কোনোদিন আনতে পারে নাই, আগামীতেও আনার কোনো সুযোগ থাকবে না।’

গণফোরাম থেকে নির্বাচিত হলেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার প্রতীক ছিলো ধানের শীষ।

গত বিগত ১১ ডিসেম্বর সংসদ থেকে বিএনপির সাত এমপির পদত্যাগের পরে বর্তমান সংসদে আর তাদের প্রতিনিধিত্ব নেই। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আরেক এমপি গণফোরামের মোকাব্বির খান দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্য্য নিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করেন। যদিও তার বিজয়ী হওয়ার পেছনেও মূল ভূমিকা বিএনপির।

স্বাআলো/এসএস

.

Author
ঢাকা অফিস