মাগুরায় সড়কে প্রাণ গেলো শিক্ষকের, শঙ্কায় স্ত্রী-ছেলে

মাগুরার মহম্মদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক এবং আহত হয়েছে আরো দুইজন। আজ মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত বাবুল আক্তার মহম্মদপুর উপজেলার পলাশবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ছিলেন। সে মৌফলকান্দী গ্রামের আবীর হোসেনের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাবুল আক্তার তার স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে মোটরসাইকেল চালিয়ে কর্মস্থলে যাবার পথিমধ্যে লক্ষীপুর তিন রাস্তার মোড়ে পৌছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অবৈধ যান ভটবটি/নাটা ধাক্কা দিলে স্ত্রী জেসমিন নাহার (৪০) ও পুত্র ফারহানসহ (১৫) রাস্তার উপর পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। রোগীর অবস্থা বেশি গুরুতর হলে বাবুল আক্তারসহ অন্য দুইজনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। পরে বাবুল আক্তার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেলেই মারা যান।

বাবুল আক্তারের স্ত্রী জেসমিন নাহার ভবানিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ও ফারহান পলাশবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অসিত কুমার রায় জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছানোর পূর্বেই ঘাতক ট্রলিসহ ড্রাইভার ও হেলপার পলাতক রয়েছে। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

স্বাআলো/এস

.

Author
লিটন ঘোষ জয়, মাগুরা
জেলা প্রতিনিধি