শার্শায় ৬ কোটি টাকার সোনার বার উদ্ধার

শার্শা সীমান্ত থেকে সাত কেজি ৩৩৭ গ্রাম ওজনের ৬৩ পিস সোনার বারসহ আব্দুর রাজ্জাক (৪৮) নামে এক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি। এসব সোনার বার মোটরসাইকেলের চেচিসের মধ্যে কৌশলে লুকিয়ে রাখা হয়েছিলো।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিকেলে শার্শার অগ্রভূলট সীমান্ত থেকে এ সোনার চালান জব্দ করা হয়।

আটক আব্দুর রাজ্জাক বেনাপোল পোর্ট থানাধীন বারোপুতা গ্রামের মৃত সমসের আলী।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) খুলনা ২১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তানভীর রহমান জানান, সোনার বড় একটি চালান ভারতে পাচার হচ্ছিলো। খবর পেয়ে অগ্রভূলাট সীমান্তে অভিযান চালানো হয়। এসময় সন্দেহ হওয়ায় আব্দুর রাজ্জাক নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীকে থামিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। তল্লাশিতে মোটরসাইকেলের চেচিসের ভেতর কৌশলে লুকিয়ে রাখা ৬৩ পিস সোনার বার পাওয়া যায়। পরে স্বর্ণের বারগুলোসহ তাকে আটক করা হয়। জব্দ করা সোনা ও মোটরসাইকেলের আনুমানিক বাজারমূল্য পাঁচ কোটি ৯০ লাখ টাকা। এ ঘটনায় মামলা দিয়ে সোনার বারগুলোসহ আব্দুর রাজ্জাককে শার্শা থানায় সোপর্দ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত এক বছরে এ সীমান্ত থেকে ২১টি অভিযানে ৫৭ কেজি সোনা জব্দ করেছে খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়ন। এসময় সোনা চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত ২১ জনকে আটক করা হয়। ৫৭ কেজি সোনার আনুমানিক বাজার মূল্য ৪২ কোটি টাকা।

স্বাআলো/এস

.

Author
বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি