এক পায়ে দাঁড়িয়ে বুঝে নিন হার্ট সুস্থ আছে কি না

হার্ট অ্যাটাক কখন হয় জানেন? যখন হৃদপিণ্ডের কোনো শিরায় রক্ত জমাট বেঁধে হৃদযন্ত্রের রক্ত চলাচলে বাঁধার সৃষ্টি করে তখনই হার্ট অ্যাটাক হয়। বয়সের কারণে, উচ্চ কোলেস্টোরলের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, অতিরিক্ত মেদ, মদ্যপান, মানসিক চাপ এমনই একাধিক কারণে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

অনেক সময় হার্ট অ্যাটাক হলেও তা সেভাবে বোঝা যায় না। অসলে, কখনো কখনো বুকে কোনো রকম ব্যথা অনুভূত না হলেও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। এ সব ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাক হয়েছে কিনা তা খুব বোঝা বেশ শক্ত! তবে আপনার হৃদযন্ত্র ঠিক মতো কাজ করছে কিনা, বা তার সুস্থতা সম্পর্কে জানার একটা সহজ পদ্ধতি আছে।

এই পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন, আপনার হার্ট ভালো আছে কি না। ঘরে এক পায়ে দাঁড়িয়ে করতে হবে এই পরীক্ষা।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত এক সমীক্ষা অনুসারে, কমপক্ষে ২০ সেকেন্ডের জন্য এক পায়ে দাঁড়াতে পারলে বুঝবেন আপনার হৃদযন্ত্রসহ সার্বিক স্বাস্থ্য ভালো আছে।

এই গবেষণায় ৮৪১ জন নারী ও ৫৪৬ জন পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। তাদের গড় বয়স ছিলো ৬৭ বছর। এক পায়ে দাঁড়ানোর সময় অংশগ্রহণকারী তাদের চোখ খোলা রেখেছিলেন। এক পা উঁচু করে রাখার সর্বোচ্চ সময় ছিলো ৬০ সেকেন্ড।

এই পরীক্ষায় যেসব অংশগ্রহণকারী নিজেদের ভারসাম্য ধরে রাখতে পারেননি তাদের হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের ঝুঁকি বেশি ছিলো।

গবেষণার প্রধান লেখক ও কিয়োটো ইউনিভার্সিটি গ্র্যাজুয়েট স্কুল অব মেডিসিনের সেন্টার ফর জেনোমিক মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক ইয়াসুহারু তাবারার এ বিষয়ে জানান, এক পায়ে দাড়ানোর সক্ষমতা মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের জন্যও একটি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা।

তার মতে, এক পায়ে যারা দাঁড়াতে পারেন না তাদের মধ্যে মস্তিষ্কের রোগ ও মানসিক স্বাস্থ্যের ঝুঁকি বেশি। আবার হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের ঝুঁকি আছে কি না সেটিও জানা যায় এই পরীক্ষার মাধ্যমে।

নিয়মিত এক পায়ে দাঁড়ানোর অভ্যাস করলেও মিলবে সুফল। এটি শরীরচর্চার একটি ভঙ্গি। যা ডিমেনশিয়া প্রতিরোধ করে ও শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখা যায়।

আবার মানসিকভাবেও সুস্থতা মেলে। এমনকি শারীরিক সক্ষমতাও বাড়ায় এই ভঙ্গি, কাঁধের প্রশস্ততা বাড়ায়। এক পায়ে দাঁড়ানোর অভ্যাস করলে আপনার হার্টও ভালো থাকবে।

স্বাআলো/এসএস

.