যুক্তরাজ্যের রাস্তায় চলতে ভয় পায় ৪৪ শতাংশ মেয়ে

ফাইল ছবি

যুক্তরাজ্যে দৈনন্দিন জীবনে যৌন হয়রানির শিকার হচ্ছে বহু কিশোরী। এর ফলে রাস্তাঘাটে একা চলাফেরায় ভয় পাচ্ছে তারা। সাম্প্রতিক এক জরিপে উঠে এসেছে এমন উদ্বেগজনক তথ্য।

বিবিসি রেডিও ৫ লাইভ এবং বিবিসি বাইটসাইজের জন্য জরিপটি পরিচালনা করেছে সার্ভেশন নামে একটি সংস্থা। এতে এক হাজার কিশোর ও এক হাজার কিশোরীর (বয়স ১৩ থেকে ১৮ বছর) কাছে নিরাপত্তা অনুভূতি সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়।

জরিপের অংশ নেয়া ২৭ শতাংশ কিশোরী জানিয়েছে, তারা কোনো না কোনোভাবে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে। ৪৪ শতাংশ কিশোরী বলেছে, তারা রাস্তায় একা চলাফেরায় নিরাপদবোধ করে না।

১৩ বছরের কিশোরী জানিয়েছে, স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে কখনোই নিজেকে খুব একটা নিরাপদ মনে হয় না তার। সেকেন্ডারি স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই এ ধরনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে সে।

অন্য কিশোরীরা বলেছে, নিরাপত্তার খাতিরে কী পোশাক পরে বাইরে বের হবে, তা নিয়েও সতর্ক থাকতে হচ্ছে।

শুধু মেয়েরাই নয়, রাস্তায় একা চলতে ভয় পাওয়ার কথা জানিয়েছে প্রায় এক-চতুর্থাংশ (২৪ শতাংশ) কিশোরও।

১৫ বছর বয়সী কিশোর জানায়, যদি একদল ছেলে আমার দিকে তাকিয়ে থাকে এবং আমি একা থাকি ও চারপাশে অন্ধকার হয়, অবশ্যই আমি নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তায় থাকবো। তারা আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে। আপনি সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক ভিডিও দেখবেন, যেখানে লোকদের আক্রমণ করা হচ্ছে এবং এটি আপনাকে আতঙ্কিত করবে।

নারীদের নিরাপত্তার প্রচারণায় কাজ করা ‘আওয়ার স্ট্রিটস নাউ’ নামে একটি সংগঠনের সদস্য রোজি। ১৬ বছর বয়সী এ কিশোরীর মতে, কাউকে যৌন হয়রানি করা কেনো ঠিক নয়, এ বিষয়ে মানুষকে বোঝানোর জন্য আরো অনেক কিছু করা দরকার।

রোজির কথায়, তাদের বলতে হবে, এটি অপরাধ, কোনো প্রশংসা নয়। এতে খুশি হওয়ার কিছু নেই। নিজের কাজ করছে এমন কারো জন্য রাস্তার অন্য পাশ থেকে চিৎকার করতে হবে- এটি এমন কোনো বিষয় নয়।

সূত্র: বিবিসি

স্বাআলো/এস