আজ বুধবার ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং ৮ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বসন্তকাল ১৪ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম :
বন্দুকযুদ্ধে’ ছিনতাইকারী গুলিবিদ্ধ আজও বার্সেলোনা ড্র করেছে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শুরুতেই তিন উইকেট হারাল বাংলাদেশ ঢাকায় অস্ট্রেয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ৩৩১ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে বাংলাদেশ ২০ ফেব্রুয়ারি দিনটি কেমন যাবে ইতিহাস ঐতিহ্যে ভরপুর ঝিনাইদাহের বারোবাজার ইউসিবিএল ব্যাংকের ম্যানেজারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রাজ্জাকের পদত্যাগকে স্বাগত জানালেন ড. কামাল ৩১ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধারের ঘটনায় দুই ডাক্তার বরখাস্ত মণিরামপুরে ভাইয়ের হাতে বোন খুন জেনে নিন, আনারস আর দুধ একসাথে খেলে কি হয় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ১৬টি অঙ্গরাজ্যের মামলা সড়ক দুর্ঘটনায় ডিশ ব্যবসায়ী নিহত নদী আর গহীন অরণ্যের মাঝে ঘুরে আসুন সুন্দরবন চুয়াডাঙ্গায় সোলার লাইট স্থাপন কার্যক্রম উদ্বোধন পুলিশ হেফাজতে সালমান মুক্তাদির জিজ্ঞাসাবাদ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞানের ২০ শতাংশ অগ্রাধিকার নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা স্মার্ট কার্ড পেয়েছেন, জেনে নিন কি কি সুবিধা পাবেন চৌগাছায় আ.লীগ নেতা হত্যায় ১৭ জনের নামে মামলা মুক্তির অপেক্ষায় ‘বিউটি সার্কাস’: জয়া ও ফেরদৌস ১৫ মার্চ থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু কাশিয়ানীতে কোচিং সেন্টারে অভিযান: পোড়ানো  হলো বেঞ্চ

মাত্র ৪ রানে সিরিজ হারাল ভারত

মাত্র ৪ রানে সিরিজ হারাল ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক: ওয়ানডে সিরিজ হারের জবাব দিল টি-টোয়েন্টিতে। ভারত ওয়ানডে সিরিজ জয় পেলেও টোয়েন্টি সিরিজ ধরে রাখতে পারও না। শেষে টি-টোয়েন্টি মাত্র ৪ রানে হারল ভারত। ভারত এই সিরিজ হারল ২-১ ব্যবধানে।

নিউজিল্যান্ড ২১৩ রানের বিশাল লক্ষ্যে খেলতে নামেন কিন্তু এক পর‌্যায়ে ৪ রানে আটকে গেল। ভারত ১৪৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে করুণ অবস্থার মধ্যে পড়ে যায়। কিন্তু দিনেশ কার্তিক ও ক্রুনাল পান্ডিয়ার দ্রুরান্ত ব্যাটিংয়ে ভারত জয়ের কাছে চলে আসে। শেষে ২ ওভারে মাত্র ৩০ রান লাগে তারপর এক ওভারে ১৪ রান লাগে তখন বল করতে আসে টিম সাউদি। ১৪ রানের জায়গায় ১১ রান তুলতে সক্ষম হয় ফলে ৪ রানে ম্যাচ হারাতে হয় ভারতের।

ম্যাচের শুরুতে ৩৮ রান আর বিজয় শঙ্কর ৪৩ রানের ইনিংস খেলে দলের জন্য একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কিন্তু শেষ পর‌্যন্ত এই ধারা ধরে রাখতে পারে না ভারত। পরে কার্তিক এবং পান্ডিয়াই ম্যাচটা জয়ের দিকে নিযে যায়। কার্তিক ৩৩ রান করে ১৬ বলে এবং পান্ডিয়া ১৩ বলে২৬ রান এবং রাশেত পান্ত ১২ বলে ২৮ রানে একটা ভালো ইনিংস খেলে।

নিউজিল্যান্ডের ড্যারিল মিচেল স্যান্টনার ৩ ওভার বল করে ২৭ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন এবং মিচেল স্যান্টনার ৩ ওভার বল করে ৩২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন।

আরো পড়ুন>>> প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৪৭

এর আগে টস হেরে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড কলিন মুনরোর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে। ৪০ বলে ৭২ রান করেন মুনরো। ৫টি চার ও ৫ ছক্কা ছিলো তার ইনিংসে। এছাড়া ওপেনার সেইফার্টও ছিলেন আক্রমণাত্মক। এই দুজনের ঝড়ো জুটিতে ৮ ওভারে জমা হয় ৮০ রান। সেইফার্ট ও মুনরো ফিরে গেলে ঝড়ো গতিতে রান তোলেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও কলিন ডি গ্র্যান্ড হোম। তারা যথাক্রমে ২৭ ও ৩০ রান করে ফিরলে পরে আরও আক্রমণাত্মক ছিলেন ড্যারিল মিচেল ও রস টেলর। ১১ বলে ১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন মিচেল। আর রস টেলর ৭ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন। তাদের ব্যাটে ৪ উইকেটে ২১২ রান তুলে নিউজিল্যান্ড।

ইনিংস খেলা মুনরো হয়েছেন ম্যাচসেরা আর তিন ম্যাচে সর্বাধিক ১৩৯ রান করা সেইফার্ট হন সিরিজ সেরা।

স্বাআলো/এএম